সিবিএন অনলাইন ডেস্ক

চট্টগ্রামে কোটাবিরোধী শিক্ষার্থীরা রাতেও সড়ক অবরোধ করে রেখেছেন। নগরীর দুই নম্বর গেট মোড়ে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন তারা। এতে পুরো এলাকা থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় দেখা গেছে, মোড়ে চারটি সড়ক বন্ধ করে দিয়েছেন শিক্ষার্থীরা। আন্দোলনে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীসহ চট্টগ্রামের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের দেখা গেছে। আন্দোলনকারীদের পাশাপাশি অবস্থানে রয়েছে পুলিশও।

ঘটনাস্থলে থাকা চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (উত্তর) মো. জাহাঙ্গীর বলেন, ‘আমরা আন্দোলনকারীদের বুঝানোর চেষ্টা করছি। তারা বলছেন, দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত অবস্থান কর্মসূচি চালিয়ে যাবেন। এক্ষেত্রে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

আন্দোলনের সমন্বয়কারী চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী আরেফিন বলেন, দেশের বিভিন্ন জায়গায় আমাদের ভাইদের ওপর হামলা হয়েছে। আমাদের ওপরও পুলিশ লাঠিচার্জ করেছে। দাবি আদায়ে আমরা মাঠে থাকব। রাত আটটা পর্যন্ত অবরোধ চলবে। সাধারণ মানুষের কথা বিবেচনা করে আজকের মতো আন্দোলন স্থগিত হবে।

এর আগে বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে পুরাতন রেলস্টেশন এলাকা থেকে মিছিল নিয়ে টাইগারপাস এলাকায় আসেন আন্দোলনকারীরা। এসময় পুলিশ তাদেরকে বাধা দেয়। বাধা উপেক্ষা করে সড়ক অবরোধ করতে চাইলে পুলিশ তাদের ধাওয়া দেয়। এতে বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী আহত হয়।

বৃষ্টি উপেক্ষা করে আন্দোলনে জড়ো হচ্ছে শিক্ষার্থীরা

পরে খণ্ড খণ্ড মিছিল নিয়ে দুই নম্বর গেট এলাকার দিকে যান শিক্ষার্থীরা। এরপর থেকে দুই নম্বর গেট এলাকা অবরোধ করে রেখেছেন তারা।

ওই ঘটনায় শিক্ষার্থীরা বলছে, পুলিশে শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে লাঠিচার্জ করেছে। তবে শিক্ষার্থীদের দাবি সত্য নয় জানিয়েছে পুলিশ।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের ডিসি (উত্তর) মো. মোখলেছুর রহমান বলেন, আমরা তাদের (শিক্ষার্থী) বোঝাতে সক্ষম হয়েছি। তারা রাত আটটার পর চলে যাবে।