রামু প্রতিনিধি:
সুমাইয়া জান্নাত। পূর্বের নাম শ্রেয়সী দে চৈতী। ইসলাম ধর্ম সম্পর্কে বিভিন্ন বই-পুস্তক পাঠ করে ইসলাম ধর্মের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে ৬ মাস পূর্বে দেশের প্রচলিত আইন অনুযায়ি নোটারী পাবলিকের মাধ্যমে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ ও নাম সংশোধন করেন। সম্প্রতি বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন ইসলাম ধর্মের অনুসারী যুবক ইয়াছির আরাফাতের সাথে।
সুমাইয়া জান্নাত (২৩) বর্তমানে রামু সরকারি কলেজের ডিগ্রী দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। তার বাবা অরুন কান্তি দে রামু রাবার বাগানের গাড়ি চালক। তাদের স্থানী নিবাস চকরিয়া উপজেলার ডুলাহাজারা হলেও বাবার চাকরি সূত্রে দীর্ঘদিন সপরিবারে রামু রাবার বাগান এলাকায় বসবাস করে আসছেন।

সুমাইয়া জান্নাত জানান- সম্প্রতি তিনি কক্সবাজার সদর উপজেলার পূর্ব ঘোনার পাড়া এলাকার মো. কামাল হোসেন মজুমদারের ছেলে কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী ইয়াছির আরাফাত অপির সাথে ইসলামী শরিয়াহ ও রেজিস্ট্রি কাবিননামামূলে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন।
তিনি আরো জানান- গত ২৭ ফেব্রæয়ারি কক্সবাজার নোটারী পাবলিকের কার্যালয়ে হলফনামামূলে সনাতন ধর্মাবলম্বী শ্রেয়সী দে চৈতী ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন এবং পূর্বের নাম শ্রেয়সী দে চৈতী এর পরিবর্তে নতুন নাম রাখেন সুমাইয়া জান্নাত।
ওইসময় সুমাইয়া জান্নাত একটি জামে মসজিদের ইমামের নিকট পবিত্র কালেমা শরীফ পাঠ করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন।
সুমাইয়া জান্নাত আরো জানান- তাদের বিয়ের থেকে তার পিতা-মাতা সহ পরিবারের সদস্যরা তাদের এ বিয়ে মেনে না নিয়ে তাদের হয়রানি করার জন্য কক্সবাজার সদর মডেল থানা, রামু থানায় অভিযোগ দিয়েছে। যা অনাকাংখিত। তিনি তাদের নতুন দাম্পত্য জীবন এবং ইসলামী রীতিনীতি মেনে আল্লাহ ও রাসূল (স.) এর আদর্শমতে চলতে সবার দোয়া কামনা করেছেন।