সৈয়দ তানবীর মাহমুদ খোন্দকার


প্রথমে হলদিয়া নিউজ ডটকমকে ধন্যবাদ এবং সেইসাথে চলতি দায়িত্বে নিয়োজিত প্রধান শিক্ষকদের। অনেকদিন পর আমরা পেলাম একদল সূর্য সৈনিক। যারা প্রাথমিক শিক্ষায় বিপ্লব ঘটাবেন। তারা শুধু উখিয়াতে নয় কক্সবাজার জেলাতে ও শ্রেষ্ঠ হবেন। তাদের সততা, প্রজ্ঞা, আন্তরিকতা সত্যিই অতুলনীয়। তাদের অনেক অভিজ্ঞতা আছে। কারণ দীর্ঘদিন সহকারি শিক্ষক হিসেবে বিভিন্ন বিদ্যালয়ে পাঠদান করেন। উদাহরণস্বরূপ বলা যেতে পারে- উচ্চ আদালতে যারা আইনজীবী হতে বিচারক নিযুক্ত হন, মূলত তারাই সুনাম অর্জন করেন। কেননা আইনের ফাঁক তারাই ভালো জানেন। তাই বলি- আপনারা সহকারি শিক্ষকদের সহজে আকৃষ্ট করতে পারবেন। প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক ও সহকারি শিক্ষকদের বাদানুবাদ হয় আর্থিক বিষয়ে। আরেকটি হলো কাজের অসমতা। এছাড়া তেমন আর সমস্যা নেই। So to say, the best remedy of dispute is to discuss it. প্রধান শিক্ষককে বিদ্যালয়ের স্বার্থে যেমন কঠোর হতে হয় তেমনি ক্ষেত্র বিশেষে রসিক ও হতে হয়। বলাবাহুল্য, প্রধান শিক্ষক যেমন বিদ্যালয় ও তেমন। অপ্রিয় হলে সত্য যে- ২০০৮ সাল হতে পদোন্নতি বন্ধের কারণে শিক্ষকদের মাঝে হতাশা বিরাজ করছে। প্রতিবছর পদোন্নতি হলে শিক্ষকদের মাঝে কাজের আগ্রহ ও নতুনত্ব সৃষ্টি হবে। একটি কথা না বললে নয়- অমৃত স্যার যে বিদ্যালয়ে যাবেন সে বিদ্যালয়ে সুগন্ধি ছড়াবেন। শুধু তাই নয়, ছাত্রছাত্রীদের তিনি যে স্বাস্থ্যবিধি ও আদবকায়দা শেখান তা এককথায় অসাধারণ। এটা সত্য যে- নুরুল আলম স্যারের মতো অমায়িক ও সৎ শিক্ষক আর আছে বলে আমার মনে হয়না। জীবনে কখনো তিনি দেরিতে স্কুলে আসেননি। কিন্তু সমাজ তথা প্রতিষ্ঠানে নুরুল আলম স্যারের মতো মানুষ চরম অবহেলিত। এও জানি- Where money talks wisdom remains silent there. আপনাদের কাছে আমার আকুল আবেদন- প্রতিদিন শিক্ষকদের নিয়ে etiquette, society, teachers personality, quality teaching, student and teacher relation, values এসব বিষয় নিয়ে আলোচনা করবেন। বিষয়টি অন্যভাবে নিয়েননা। আল্লাহ আপনাদের সহায় হোক। ভালো থাকুন ও অন্যকে ও ভালো রাখুন। এককথায়- A gentleman is one who considers the good of others.


লেখক :  সৈয়দ তানবীর মাহমুদ খোন্দকার সহকারি শিক্ষক মধ্য রাজাপালং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। মোবাইল- ০১৮৪২৭৪৮১০৪।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •