আবদুর রহমান খান

ভারতের হায়দ্রাবাদে অবস্থিত সাড়ে চার শ’ বছরের প্রাচীন ঐতিহাসিক মসজিদ-এ-কুতুব শাহি’র প্রবেশদ্বার নিরাপত্ত প্রাচীর ভেঙ্গে উগ্রবাদী হিন্দুরা।

জোর করে সেখানে মুর্তি স্থাপনে করে পুজার আয়োজন করায় সাম্প্রদায়িক উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। হায়দ্রাবাদ্ পুলিশ অজ্ঞাতনামা ব্যাক্তিদের নামে একটি এফ আই আর করেছে।

ইতোমধ্যে হায়দ্রাবাদের বিক্ষুব্ধ মুসলমানগন তাদের ধর্মীয় অনুভুতিতে আঘাতের প্রতিবাদে রাস্তায় নেমেছে। দু’দিন আগে (রোববার) সংগঠিত এ ঘটনা আজ কাশ্মির মিডিয়া সার্ভিস প্রকাশ করেছে। এর আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধমে বিষয়টি ব্যাপক প্রচার লাভ করে।

হায়দ্রাবাদের অন্যতম রাজনৈতিক দল অল ইন্ডিয়া মজলিশ-এ- মুত্তাহিদুল মুসলিমিন ( এ আই এম আই এম ) সংক্ষেপে আইমিম এর রাজ্য সভা সদস্য কাউসার মহিউদ্দিন জানান, মসজিদ –এ –কুতুব শাহিতে জোর পুর্বক অনুপ্রবেশ এবং মুর্তি স্থাপনের বিষয়টি জানতে পেরে তাদের সংঠনের সভাপতি ব্যারিষ্টার আসাদুদ্দিন ওয়াইসির নির্দেশে তারা দ্রুত ঘটনাস্থলে ছুটে এসেছেন। তার আগেই স্থানীয় মুসল্লী এবং মসজিদের ওয়াকফ বোর্ডের সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছান এবং পুলিশকে ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ করেন। কিন্তু পুলিশ দাঁড়িয়ে থেকে নিরব ভূমিকা পালন করে।

সাম্প্রদায়িক উত্তেজনার খবর পেয়ে কংগ্রেসের নেতারাও সেখানে ছুটে গেছেন। তারা ওয়াকফ বোর্ডের চেয়ারম্যান মহাম্মদ মসিউল্লাহ খান সহ অন্যান্য কর্মকর্তাদের সাথেও কথা বলেছেন।

এ ঘটনায় জাতিসংঘ শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি সংস্থা এর চেয়ারপারসন এবং সুয়েডেনের উপশালা বিশ্ব বিদ্যালয়ের পিস এন্ড কনফ্লিক্ট বিষোয়ের অধ্যাপক আশোক সোয়াইন এক টুইট বার্তায় জানিয়েছেন, এটি দক্ষিন ভারতে বাবরি মসজিদের পুনরাবৃত্তি। একদল ডানপন্থী হিন্দু জোড় পুর্বক মসজিদ –এ –কুতুব শাহিতে অনুপ্রবেশ এবং মুর্তি স্থাপন করেছে।

গোলকুন্ডার হিরক খনির কাছে প্রায় ৪৫০ বছর আগে প্রতিষ্ঠিত মসজিদটি অনেকটা নাজুক হয়ে পরার কারনে এর সংস্কারের প্রয়োজন দেখা দেয়। দীর্ঘ কয়েক দশকের অযত্ন অহহেলার পর সম্প্রতি রাজ্যের সংখ্যালঘু কল্যান অধিদপ্তর মসজিদটির সংস্কারের জন্য ৪০ লক্ষ রূপি বরাদ্ধ দিয়েছে।

লিঙ্ক https://twitter.com/ashoswai/status/1581643406085738497?s=20&t=s_piS819Y-lXhOqCuKr14A