প্রেস বিজ্ঞপ্তি:

সরকারের মন্ত্রী পরিষদ সচিব মোঃ শফিউল আলম বলেছেন, গুণীদের সম্মান জানানো অপরিহার্জ সংস্কৃতি। যে দেশে গুণের সমাদর নেই সে দেশে গুনী জন্মাতে পারে না। সার্ফিং,উশু,তায়কোয়ানডো,ফুটবল,ক্রিকেটে কক্সবাজারের ছেলে মেয়েরা জাতীর প্রতিনিধিত্ব করছে। সে জন্য জাতীয় ক্রীড়া ক্ষেত্রে কক্সবাজার একটি অনন্য সফল নাম। পর্যটনের পাশাপাশি খেলাধুলাই কক্সবাজারের এগিয়ে যাওয়া একটি বিশ্বয় হয়ে ধরা পড়েছে। তাই এই জেলার খেলোয়াড়দের আরো বেশি পৃষ্টপোষকতা করা গেলে জাতীয় এবং আর্ন্তজাতিক খেত্রে অবদান রাখতে পারবে। আমি কক্সবাজারের সন্তান হিসাবে সব চেস্টা থাকবে এই জেলার জন্য সর্বোচ্চ কিছু করা।

এ সময় তিনি কক্সবাজারে ইনডোর স্টেডিয়াম এবং বীর শ্রেষ্ট রুহুল আমীন স্টেডিয়ামে গ্যালারী সহ অন্যান্য অবকাঠামো গত উন্নয়ন করার প্রত্যায় ব্যাক্ত করেন।

তিনি ২৩ সেপ্টেম্বর রাত ৮ টায় কক্সবাজার জেলা ক্রীড়া সংস্থার আয়োজনে জেলার কৃতি খেলোয়াড়দের মিলনমেলা ও সংবর্ধনা সভায় উপরোক্ত কথা বলেন, এ সময় তিনি জেলা ক্রীড়া উন্নয়নে উপজেলা ক্রীড়া সংস্থা গুলোকে আরো বেশি সক্রিয় করার জন্য আহবান জানান একই সাথে জেলা ক্রীড়া সংস্থা এবং জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের মধ্যে দূরত্ব কমিয়ে ফুটবলকে আরো বেশি মাঠ পর্যায়ে ছড়িয়ে দেওয়ার আহবান জানান। ক

ক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্টিত সভায় বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোঃ মাহিদুর রহমান, কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি এড, একে আহাম্মদ হোসেন, জেলা জাসদের সভাপতি নঈমুল হক চৌধুরী টুটুল, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক অনুপ বড়–য়া অপু,জাতীয় পুরষ্কার প্রাপ্ত ফুটবলার সুনীল কৃষœ দে,জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ সভাপতি জসিম উদ্দিন, উশু এসোসিয়েশনরে সাধারণ সম্পাদক মোঃ শেখ সেলিম। অনুষ্টানে পরিচালনা করেন জেলা ক্রীড়া সংস্থার সদস্য রতন দাশ। পরে কক্সবাজারের ৪০ জন সাবেক ও বর্তমান জাতীয় কৃতি খেলোয়াড়দের সংবর্ধিত করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •