নিউজ ডেস্ক:
সরকারি কলেজে শিক্ষক নিয়োগে বিশেষ ৪১তম বিসিএস পরীক্ষার আয়োজনের কথা থাকলেও সে সিদ্ধান্ত থেকে পিছিয়ে গেছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে বিভিন্ন ক্যাডারে চাহিদা পাওয়ায় এটি সাধারণ বিসিএস পরীক্ষার মতো আয়োজনের প্রস্তুতি শুরু হয়েছে।

সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহে ৪১তম বিসিএস পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে। পিএসসি সূত্রে এমন তথ্য জানা গেছে।

সরকারি কলেজে শিক্ষক সংকট থাকায় বিশেষ বিসিএস পরীক্ষার আয়োজনের মাধ্যমে এ সংকট নিরসনে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে পিএসসিতে চাহিদাপত্র পাঠানো হয়। শিক্ষক নিয়োগের জন্য ৪১তম বিশেষ বিসিএস পরীক্ষা আয়োজনের নীতিগত সিদ্ধান্ত থাকলেও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের চাহিদাপত্রটি এখনও পিএসসিতে পৌঁছেনি। এ কারণে এটি সাধারণ বিসিএস পরীক্ষার মতো অনুষ্ঠিত হবে বলে একাধিক কর্মকর্তা নিশ্চিত করেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পিএসসি’র দায়িত্বশীল এক কর্মকর্তা জানান, বিশেষ বিসিএস পরীক্ষা আয়োজন করতে হলে বিধিমালা সংশোধনসহ যাচাই-বাছাই কার্যক্রম করতে ছয় মাস প্রয়োজন হয়। কিন্তু এখনও শিক্ষক নিয়োগের জন্য বিশেষ বিসিএস আয়োজনে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে পিএসসিতে কোনো চাহিদা আসেনি। তবে বিভিন্ন ক্যাডারে নিয়োগের জন্য চাহিদা পাঠানো হয়েছে। এ কারণে ৪১তম বিসিএস পরীক্ষা আয়োজনে গত দুই মাস থেকে প্রস্তুতি শুরু করা হয়েছে। আগামী সেপ্টেম্বর মাসের প্রথম দিকে এ পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে।

জানা গেছে, বিসিএস পরীক্ষা আয়োজনের জন্য জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে দুই হাজার ১৩৫টি শূন্য ক্যাডার পদের চাহিদা দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে প্রশাসন ক্যাডারে ৩২৩ জন, পররাষ্ট্র ক্যাডারে ২৫ জন এবং পুলিশ ক্যাডারে সহকারী পুলিশ সুপার পদে ১০০ জন নিয়োগ পাবেন।

পিএসসি থেকে জানা গেছে, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো চাহিদায়পত্রে শুল্ক ও আবগারিতে ২৩টি, কর ক্যাডারে ৬০টি, আনসারে ২৩টি, নিরীক্ষা ও হিসাব ক্যাডারের ২৫টি, সমবায় ক্যাডারে ৮টি, পরিসংখ্যান কর্মকর্তা পদে ১২টি, তথ্য ক্যাডারে ৪৭টি, বিসিএস কৃষি ক্যাডারে ১৮৯টি, বাণিজ্য ক্যাডারের সহকারী নিয়ন্ত্রকের ৪টি, স্বাস্থ্য ক্যাডারের সহকারী সার্জন, ডেন্টাল সার্জনের ১৪০টি পদে নিয়োগের জন্য সুপারিশ করা হবে।

এদিকে ৪১তম বিসিএস সাধারণ হলে এখান থেকে সাধারণ শিক্ষায় ৮৯২টি পদে শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে। যদিও সারাদেশে সরকারি কলেজগুলোতে দুই হাজারেরও বেশি শিক্ষকের পদ শূন্য রয়েছে। এছাড়া অনেক শিক্ষক মাতৃত্বকালীন ছুটি, শিক্ষা ছুটিসহ বিভিন্ন কারণে পাঠদানের বাইরে আছেন। ফলে সরকারি কলেজগুলোতে শিক্ষক শূন্যতা তৈরি হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পিএসসির চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ সাদিক বলেন, ‘সরকারি কলেজের শিক্ষক সংকটের বিষয়টি আমরা জানি। শিক্ষক নিয়োগের জন্য আমাদের পরিকল্পনায় একটি বিশেষ বিসিএস রয়েছে। প্রস্তাবনা পেলে আইন পরিবর্তন করে শিক্ষক নিয়োগের জন্য বিশেষ বিসিএস পরীক্ষা আয়োজন করা হতে পারে।’

চলতি বছর অনুষ্ঠিত হওয়া ৪০তম বিসিএস সাধারণ হলেও ৩৯তম বিসিএস ছিল বিশেষ। এ বিসিএস থেকে স্বাস্থ্য ক্যাডারে দেড় হাজারের মতো ডাক্তার নিয়োগ দেয় সরকার। ননক্যাডার হিসেবে সাড়ে ৪ হাজার জনের ফল প্রকাশ করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •