স্পোর্টস ডেস্ক:
শেষ ওভারে অবিশ্বাস্য বোলিং করে ম্যাচ জিতিয়েছেন মোস্তাফিজুর রহমান। ৮ রানের জায়গায় মাত্র ৪ রান দিয়ে বাংলাদেশকে উপহার দেন ৩ রানের দুর্দান্ত এক জয়। মোস্তাফিজের আগের ওভারে মোহাম্মদ নবিকে ফিরিয়ে দিয়ে বাংলাদেশকে খেলায় ফিরিয়ে আনার ক্ষেত্রে কম কৃতিত্ব নয় সাকিব আল হাসানের।

কিংবা ইনিংসের মাঝপথে আসগর আফগান কিংবা হাশমতউল্লাহ শহিদির উইকেট নিয়ে বাংলাদেশকে খেলায় ধরে রাখার পেছনে মাশরাফির অবদান মোটেও কম নয়। ব্যাটিংয়ে ৭১ রান করে অপরাজিত থাকা ইমরুল কায়েসও এই জয়ে বড় কৃতিত্বের দাবিদার।

কিন্তু একজনের কাছে অন্য সবার সব কৃতিত্ব ম্লান হয়ে যাচ্ছে। তিনি হচ্ছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ইমরুলের সঙ্গে ১২৮ রানের রেকর্ড জুটি গড়ে বাংলাদেশের রানকে ২৫০-এর কোঠায় নিয়ে গেছেন রিয়াদ। ৭৪ রান করে তিনি আউট হয়ে যান। তবে, যে ব্যাটিং তিনি উপহার দিলেন সেটাও অবিশ্বাস্য।

শুধু ব্যাটিং হলে কমই হতো। বোলিংয়েও যে তিনি ছিলেন সমান পারদর্শী! মাত্র ৫ ওভার বল করেছেন। তবে, বোলিংয়ে এসেই তিনি বিশাল এক আস্থার প্রতিদান দিলেন। উইকেটে ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠা মোহাম্মদ শাহজাদকে বোল্ড করলেন রিয়াদ। তার এই ব্রেক থ্রুতেই জয়ের পথ রচনা হয়েছে বাংলাদেশের। কারণ শাহজাদ আউট হওয়ার পরই আফগানদের রানে কিছুটা মন্থর গতি চলে আসে।

সুতরাং, ৩ রানের দুর্দান্ত এই জয়ের ম্যাচে ম্যাচ সেরার পুরস্কার তুলে দেয়া হলো ৭৪ রান করার পাশাপাশি ১ উইকেট নেয়া ক্রিকেটার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের হাতে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •