বার্তা পরিবেশক :

বঙ্গবন্ধু’র ভাস্কর্য নিয়ে কোন ষড়যন্ত্র মেনে নেবে না। স্বাধীনতা বিরোধীরা ভাস্কর্য ভেঙ্গে ২০ কোটি বাঙ্গালীর মনে আঘাত দিয়েছে। দেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছে ঠিক তখনই সাম্প্রদায়িক ও প্রতিক্রিয়াশীল গোষ্ঠি বঙ্গবন্ধু’র ভাস্কর্য ভেঙ্গে ন্যাক্কারজনক কাজ করেছে। বঙ্গবন্ধু’র ভাস্কর্য হচ্ছে বাঙ্গালী জাতির সংস্কৃতি। জাতির পিতাকে অসম্মান করে কেউ এইদেশে থাকতে পারবে না।

মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে ১৭ ডিসেম্বর বিকাল তিনটায় ডুলাহাজারা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের উদ্যোগে সাফারি পার্কে বঙ্গবন্ধু’র ভাস্কর্য্যে শ্রদ্ধাঞ্জলী অর্পন শেষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি রেজাউল করিম এসব কথা বলেন। এরআগে জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি রেজাউল করিম ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফজলুল করিম সাঈদীর নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধু’র প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পন করেন।

এসময় প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন, চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফজলুল করিম সাঈদী। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, মাতামুহুরী সাংগঠনিক থানা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি এসএম জাহাঙ্গীর আলম বুলবুল, উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি সরওয়ার আলম, সহ-সভাপতি মোক্তার আহমদ চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহনেওয়াজ তালুকদার, সাংগঠনিক সম্পাদক মিজবাউল হক।

প্রধান অতিথি রেজাউল করিম আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু’র কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বে পদ্মা সেতু আজ দৃশ্যমান। মাতারবাড়িতে মেঘাপ্রকল্প বাস্তবায়ন হচ্ছে। সারাদেশে উন্নয়নে ভরে যাচ্ছে। বঙ্গবন্ধু’র ভাস্কর্য নিয়ে নেতাকর্মীরা সারাদেশে সরব থাকলেও চকরিয়াতে সেটা দেখা যায়নি। দলকে আরও গতিশীল ও শক্তিশালী করতে হবে। ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি জামাল হোসেনের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামীলীগ নেতা ডা: আজিজুল মান্নান, সাবেক কৃষকলীগের সভাপতি মাষ্টার মোহাম্মদ আলী, মাষ্টার আনোয়ার হোসেন, সোলতান মাহমুদ টিপু সোলতান, সাবেক উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আমির উদ্দিন বুলবুল, ছাত্রলীগ নেতা টিপু, কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি তোয়াছিন আনোয়ার জিহান, জহির আহমদ, সিরাজুল ইসলাম, সাইফুর রহমান, এহেসানুল হক, কাইছার মো: বাবুল, রিয়াজ, সভাপতি জিহান নুর মোহাম্মদ, আজমিহি আজাদ, সাকিব জিয়াবুল আরিফিন ও এমরান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •