আনন্দবাজার :

ভারতের সঙ্গে সব রকমের কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার কড়া সমালোচনা করলেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিংহ। বললেন, ‘‘এমন প্রতিবেশী যেন আর কেউ না পায়!’’

নামোল্লেখ না করলেও, প্রতিবেশী বলতে তিনি কাকে বোঝাচ্ছেন, তা অস্পষ্ট থাকেনি পাকিস্তানের গতকালের ঘোষণার পরের দিনই, রাজনাথের মন্তব্যে। জম্মু-কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা রদের ঘোষণার জেরে বুধবার ভারতের সঙ্গে সব রকমের কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার ঘোষণা করেছে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সরকার।

তারই প্রেক্ষিতে এ দিন দিল্লিতে অবসরপ্রাপ্ত সেনা অফিসারদের একটি অনুষ্ঠানে রাজনাথ বলেন, ‘‘প্রতিবেশীকে নিয়ে আমাদের যথেষ্টই সন্দেহ, সংশয় রয়েছে। ঘটনা হল, বন্ধুকে আমরা বেছে নিতে পারি। ইনি না হলে উনি। কিন্তু প্রতিবেশীকে তো আর বেছে নেওয়া যায় না। মেনে নিতে হয়। আর সেই প্রতিবেশী যদি হয় একেবারে পাশের দরজার, তা হলে তো আর কথাই নেই! ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করি, কারও কপালে যেন এমন প্রতিবেশী না জোটে!’’

৩৭০ ধারা রদের জেরে বুধবারই ইসলামাবাদে ভারতীয় হাইকমিশনারকে বহিষ্কারের ঘোষণা করে পাকিস্তান। এও জানায়, ভারতের সঙ্গে সব রকমের কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার জন্য পাঁচ দফা কর্মসূচি নিয়েছে তারা। যার অন্যতম দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যের দরজাটা পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়া।

এও বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সরকারের পদক্ষেপ নিয়ে তাঁদের আপত্তির কথা রাষ্ট্রপুঞ্জে জানাবে পাকিস্তান। তার আগেই অবশ্য পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান হুমকি দেন, ৩৭০ ধারা রদের সিদ্ধান্তের ‘পরিণতি মোটেই ভাল হবে না’।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •