রহস্যময় অসুখে মালয়েশিয়ায় নিহত ১৪

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
মালয়েশিয়ার কেলাতান প্রদেশে রহস্যজনক অজ্ঞাত রোগে অন্তত ১৪ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। কেলাতান প্রদেশের প্রত্যন্ত একটি আদিবাসী গ্রামের এ ঘটনায় মৃত্যুর কারণ নিয়ে তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা। কারণ জানতে তদন্ত শুরু করেছে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী জুলকেফলি আহমদ বলেছেন, গত মাসে ওই গ্রামে অজ্ঞাত রোগে ১৪ জনের প্রাণহানি ঘটে। এ ঘটনার পর গ্রামবাসীরা তাদের গণকবর দিয়েছে। আদিবাসী বাতেক সম্প্রদায়ের মানুষদের এই প্রাণহানির ঘটনার পর তাদের কবর শনাক্ত করতে কাজ করছে কর্তৃপক্ষ।

তবে এদের মধ্যে দু’জন নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন বলে নিশ্চিত হয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। তিনি বলেন, মৃত্যুর আসল কারণ জানতে নিহতদের মরদেহ উত্তোলন করে ময়না তদন্ত সম্পন্ন করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এছাড়া রহস্যময় এই অসুখে অন্যরা আক্রান্ত হয়েছেন কিনা সেটিও যাচাই করা হচ্ছে।

দেশটির মন্ত্রিসভার সদস্য পি ওয়াইথা মুরথি রোববার অজ্ঞাত রোগে ১৪ জনের প্রাণহানির তথ্য নিশ্চিত করেছেন। পাশাপাশি ওই গ্রামের আরো ৮৩ জন বাসিন্দাকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে আরো ৪৬ জন।

গত সপ্তাহে দেশটির বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর আসে, আদিবাসী অধ্যুষিত ওই গ্রামের প্রধান দাবি করেছেন, খনির কারণে ওই এলাকার ভূগর্ভস্থ পানি দূষিত হয়েছে। যে কারণে মানুষ অসুস্থ হয়ে পড়ছেন এবং মারা যাচ্ছেন।

এক বিবৃতিতে মালয়েশিয়ার উপপ্রধানমন্ত্রী ওয়ান আজিজাহ ওয়ান ইসমাইল ওই এলাকার অভিযুক্ত খনি কোম্পানিকে শাস্তির মুখোমুখি হতে হবে বলে সতর্ক করে দিয়েছেন। আদিবাসীদের ব্যবহৃত পানিতে খনির দূষণের আলামত পাওয়া গেছে।

সর্বশেষ সংবাদ

উখিয়ায় এনজিও কর্মীর লাশ উদ্ধার

চট্টগ্রামে পাচারকারী চক্রের ২ সদস্য গ্রেপ্তার

টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ রোডে সড়ক দুর্ঘটনায় মহিলা নিহত, আহত ২

পাঁচ মিনিটের জন্য স্কুল মাঠে হেলিকপ্টার, উৎসুক জনতার ভিড়

রোহিঙ্গাদের পাসপোর্ট তৈরীতে সহায়তাকারীদের আইনের আওতায় আনা হবে : ডিআইজি

আ’লীগের প্রতিনিধি সভায় সফল করার আহবান জেলা ছাত্রলীগের

ভারুয়াখালীতে পরকিয়ার জেরে স্ত্রীকে হত্যা

কাজ না করেই বিল নেয়ার দিন শেষ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

মাদক ও ইভটিজিংয়ের বিরুদ্ধে টেকনাফে কমিউনিটি পুলিশিংয়ের সভা

পাসপোর্ট করতে গিয়ে কথিত পিতাসহ রোহিঙ্গা নারী আটক

ছাত্রলীগের পর যুবলীগকে ধরেছি: প্রধানমন্ত্রী

যুবলীগ নেতা খালেদ মাহমুদ রিমান্ডে

চট্টগ্রাম রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ এএসআই নির্বাচিত হলেন রাশেদ খাঁন

নারী ও কন্যা শিশুর প্রতি সহিংসতারোধে যুব সমাবেশ

বাড়িভাড়া নিয়ন্ত্রণ আইন–১৯৯১ ও কক্সবাজারের প্রেক্ষাপট

সময়ের সর্বোত্তম কাজ হচ্ছে বৃক্ষরোপন- জেলা প্রশাসক

কোস্টগার্ডের বিরুদ্ধে বোট মালিক সমিতির বিক্ষোভ 

ইসলামপুরের হাফেজ বেদারের ইন্তেকাল

পেকুয়ায় পুলিশের অভিযানে প্রতারণা মামলার আসামী গ্রেফতার

বদরখালী জেনারেল হাসপাতালে দুর্বৃত্তের হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট