শাহজালাল শাহেদ, চকরিয়া: নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) কেন্দ্রীয় কমিটির চেয়ারম্যান চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন বলেছেন, প্রকৃতির বেঁধে দেয়া নিয়মানুযায়ি মানুষ মাত্রই মরণশীল। অস্বাভাবিক মৃত্যু কারো জন্য কাম্য নয়। চলার পথে সৃষ্টিকর্তাকে স্মরণ করার পাশাপাশি নিরাপদ যাতায়াত নিশ্চিতকল্পে সচেতনতার বিকল্প নেই।

তিনি বলেন, সড়ক আনন্দের জায়গা নয়, প্রতি মূহুর্তে আমাদেরকে সতর্ক হতে হবে। এটি মহাবিপদের জায়গা। উপায়হীন মহাসড়কে ভূলের মাশুল গুনতে হবে নিজেদেরকে এবং একইভাবে কষ্ট পেতে হবে পরিবারসহ সকলকে। চালকরা কারো শত্রু নয়। সতর্কতা অবলম্বন না করলে যে কেউই নিশ্চিত দুর্ঘটনা তথা পঙ্গুত্ববরণসতহ মৃত্যুর মুখে পতিত হবে। তাই নিরাপদ যাতায়াত নিশ্চিত করতে যে যার অবস্থান থেকে সজাগ ও সচেতন হই।

নিরাপদ সড়ক চাই চকরিয়া উপজেলা শাখার উদ্যোগে সোমবার ২৪সেপ্টেম্বর “সড়ক নিরাপত্তা” বিষয়ক দিনব্যাপি এক কর্মশালা উপজেলার মোহনা মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে নিসচা চেয়ারম্যান ইলিয়াস কাঞ্চন উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

এরআগে এ উপলক্ষে সকাল ১১টায় এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি উপজেলার প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে আলোচনা সভা ও দিনব্যাপি কর্মশালায় মিলিত হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমানের সভাপতিত্বে কর্মশালায় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের নারী ভাইস চেয়ারম্যান সাফিয়া বেগম শম্পা, চকরিয়া থানার ওসি মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী, ওসি (তদন্ত) মো. ইয়াসির আরাফাত, নিসচা কেন্দ্রীয় কমিটির মহাসচিব এহসানুল হক কামাল, যুগ্ম মহাসচিব লিটন এরশাদ, সাংগঠনিক সম্পাদক এস.এম আমজাদ হোসেন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক জহিরুল ইসলাম মিশু ও নিসচা কক্সবাজার জেলা শাখার সভাপতি সাংবাদিক জসীম উদ্দিন কিশোর। এসময় বিভিন্ন গণমাধ্যমের সাংবাদিক, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও এনজিও প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা শাখার সভাপতি সোহেল মাহমুদের সার্বিক তত্ত্বাবধানে পুরো কর্মশালায় সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন মো. ইশফাতুল হাসান ইশফাত। দিনব্যাপি কর্মশালায় অংশগ্রহণ করেন চকরিয়া কেন্দ্রীয় উচ্চ বিদ্যালয়, চকরিয়া পৌর আদর্শ শিক্ষা নিকেতনসহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক প্রতিনিধি, শিক্ষার্থী, গণপরিবহনের চালক ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। কর্মশালায় বিভিন্ন দিক-নির্দেশনামূলক নাটিকা ও প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শণ করা হয়। অভিভাবক ও শিক্ষার্থীসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে দৃষ্টি আকর্ষণ করে সড়ক-মহাসড়ক পারাপারে সতর্ক ও সচেতনতাকে অনেক বেশি গুরুত্ব দেওয়ার আহবান জানান প্রশিক্ষকগণ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •