গাজায় ইসরায়েলি হত্যাযজ্ঞ: নিহতের সংখ্যা ৫০ ছাড়িয়েছে, ৩ দিনের শোক

বিদেশ ডেস্ক:
সোমবার জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস স্থাপনের দিন ইসরায়েলি হত্যাযজ্ঞের শিকার হওয়া ফিলিস্তিনির সংখ্যা ৫০ ছাড়িয়েছে। সুদূর লক্ষ্যভেদী অত্যাধুনিক ইসরায়েলি স্নাইপারে (বিশেষ ধারার বন্দুক, যা দিয়ে অনেক দূরের লক্ষ্যবস্তুকে নির্ভুল নিশানা বানানো যায়) অন্তত ৫৮ জন ফিলিস্তিনিকে হত্যা করা হয়েছে। জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস স্থাপনকে কেন্দ্র করে এদিন আরও জোরালো হয় ভূমি দিবসের চলমান বিক্ষোভ কর্মসূচি। জাতিগত মুক্তির লড়াইয়ে অর্ধশতাধিক ফিলিস্তিনির আত্মাহুতির পাশাপাশি কর্মসূচি সফল করতে গিয়ে আহত হন অন্তত ২ হাজার ৪শ মানুষ। হতাহতদের স্মরণে মঙ্গলবার থেকে তিন দিনের শোক পালনের ঘোষণা দিয়েছে ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ।

১৯৪৮ সালের ১৫ মে দখলীকৃত ফিলিস্তিনি ভূমিতে প্রতিষ্ঠিত হয় ইসরায়েল রাষ্ট্র। ১৯৭৬ সালের ৩০ মার্চ অবৈধ বসতি নির্মাণের প্রতিবাদ করায় ছয় ফিলিস্তিনিকে হত্যা করা হয়। পরের বছর থেকে ৩০ মার্চ থেকে ১৫ মে পর্যন্ত পরবর্তী ছয় সপ্তাহকে ভূমি দিবস হিসেবে পালন করে আসছে ফিলিস্তিনিরা। সোমবার দূতাবাস স্থানান্তরের প্রতিবাদে জোরালো হওয়া বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করতে গিয়ে ইসরায়েলি বাহিনীর গুলিতে নিহত হয়েছেন ৫৫ জন। গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, এদিনের কর্মসূচিতে নিহতদের মধ্যে ছয় শিশু এবং একজন প্যারামেডিক রয়েছেন। ২০১৪ সালে গাজায় ইসরায়েলি ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পর একদিনে এত সংখ্যক ফিলিস্তিনি নিহতের ঘটনা এটাই প্রথম।

ভূমি দিবসের কর্মসূচির শেষ দিনটিকে ফিলিস্তিনিরা‘নাকবা’ বা বিপর্যয় দিবস হিসেবে পালন করে থাকে। গ্রেট রিটার্ন মার্চ খ্যাত এবারের কর্মসূচিতে সোমবারের আগ পর্যন্ত প্রাণ হারিয়েছেন অন্তত ৫৪ ফিলিস্তিনি। জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস স্থানান্তরের প্রতিবাদে সোমবার সীমান্ত এলাকার ওই বিক্ষোভে অংশ নেন লাখো মুক্তিকামী ফিলিস্তিনি। এদিন নিহত ৫৮ ফিলিস্তিনিকে নিয়ে মৃতের সংখ্যা ১০০ ছাড়িয়েছে। বিক্ষোভে হানাদার বাহিনীর নির্বিচার গুলিবর্ষণে সাম্প্রতিক ইতিহাসের এ ভয়াবহ হত্যাযজ্ঞ সংঘটিত হয়। ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আশরাফ আল কিদরা জানিয়েছেন, এদিনের কর্মসূচি পালন করতে গিয়ে আহত হয়েছেন ২৪০০ ফিলিস্তিনি।

গত বছরের ৬ ডিসেম্বর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জেরুজালেমকে ইসরায়েলের একক রাজধানীর স্বীকৃতি দেন। ইসরায়েলের মার্কিন দূতাবাস তেল আবিব থেকে সরিয়ে জেরুজালেমে নিয়ে যাওয়ার প্রস্তুতির কথাও জানান তিনি। সোমবার বাইরে তখন রক্তগঙ্গা বইছে, সেই সময়ে জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাসের উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে ট্রাম্পের ঘোষণা বাস্তবায়ন করলো যুক্তরাষ্ট্র। হোয়াইট হাউসের দুই গুরুত্বপূর্ণ উপদেষ্টা ট্রাম্পের জামাতা জ্যারেড কুশনার ও মেয়ে ইভাঙ্কা ট্রাম্প যখন সঙ্গীত পরিবেশনার মধ্য দিয়ে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষ করছিলেন, ফিলিস্তিনিরা তখন হতাহতদের নিয়ে ব্যস্ত। বিক্ষোভরত ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরায়েলি হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে একে ম্যাসাকার আখ্যা দিয়েছেন ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস। হতাহতদের স্মরণে তিন দিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা করেছেন তিনি।

cbn
কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

তিনতলা থেকে পড়ে সৌদী প্রবাসী আজিমের মৃত্যু

ধানের শীষের জন্য আবেগভরা প্রচারণা মেয়ের

মাদক ও সন্ত্রাস দমন, মানুষের নিরাপত্তায় ধানের শীষে ভোট দিন: নাজিয়া জাহান চৌধুরী

সাতকানিয়ায় ওসির বিদায় ও বরণ

নৌকা বিজয়ের জন্য চকরিয়া-পেকুয়ার সাধারণ মানুষও মাঠে নেমেছে : জাফর আলম

কক্সবাজারকে স্বপ্নের পর্যটন নগরী গড়তে নৌকায় ভোট দিন : কমল

ইনানীতে নৌকার অফিসে হামলা, প্রচারনার গাড়ি ভাংচুরের অভিযোগ

১৮ ডিসেম্বরের মধ্যে সেনাবাহিনী চায় ঐক্যফ্রন্ট

মহেশখালীতে ড. আনসারুল করিমের প্রচারণার গাড়ি ও মাইক ভাংচুরের অভিযোগ

জনবিচ্ছিন্ন হয়ে আওয়ামীলীগ সন্ত্রাসতন্ত্র কায়েম করছে : লুৎফুর রহমান কাজল

টেকনাফ পৌর প্রেসক্লাব ও সাংবাদিক ইউনিটির পুষ্পমাল্য অর্পণ

১৮ ও ১৯ ডিসেম্বর কক্সবাজার বায়তুশ শরফের মাহফিল

গর্জনিয়া উচ্চবিদ্যালয়’সহ চারটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিজয় দিবস পালিত

ভোট আল্লাহর নেয়ামত, তাই সৎ ও নিরাপদ প্রার্থীকে ভোট দিন- শিরিন রহমান

‘দেড় বছরে যদি একটি উপজেলা সম্ভব হয়, তাহলে আগামীতে উন্নয়ন ও সম্ভব হবে।’

রামুর জোয়ারিয়ানালায় নৌকার সমর্থনে ছাত্রলীগের মিছিল ও পথ সভা অনুষ্ঠিত

ওরা ক্ষমতায় আসলে লাশের পাহাড় সৃষ্টি করবে: ওবায়দুল কাদের

টেকনাফে বিজিবির পৃথক অভিযানে ৫ কোটি টাকার ইয়াবা উদ্ধার

মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে ৪দিন ব্যাপী বিজয়মেলার উদ্বোধন

রাঙামাটির বাঘাইছড়িতে আ’লীগ-বিএনপি সংঘর্ষে আহত-২১