আফগানিস্তানের ৭০ ভাগ এলাকায় সক্রিয় তালেবান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
আফগানিস্তানের ৭০ শতাংশ জেলায় সক্রিয় রয়েছে তালেবান জঙ্গি গোষ্ঠী। দেশের চার ভাগ এলাকার পুরো নিয়ন্ত্রণ এবং বাকি ৬৬ ভাগ এলাকায় তাদের প্রকাশ্য উপস্থিতি বিদ্যমান রয়েছে। খবর রয়টার্স।

স্থানীয় এক হাজার ২শ মানুষের সঙ্গে কথা বলে যে জরিপ চালানো হয়েছে তা বিভিন্ন এলাকায় তালেবানের উপস্থিতি সম্পর্কে ন্যাটো যে বিবৃতি দিয়েছে তার চেয়ে অনেক বেশি নির্ভরযোগ্য বলে জানানো হয়েছে।

মঙ্গলবার ন্যাটোর এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০১৭ সালের অক্টোবর পর্যন্ত আফগানিস্তানের মাত্র ৪৪ ভাগ এলাকায় তালেবানের উপস্থিতি ছিল। কিন্তু তা বেড়ে এখন দাঁড়িয়েছে ৭০ শতাংশ।

এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে আফগানিস্তানে বেশ কয়েকটি ভয়াবহ হামলার ঘটনা ঘটেছে। তালেবান জঙ্গি গোষ্ঠী এবং আইএস এসব হামলার দায় স্বীকার করেছে।

গত শনিবার শহরের সিটি সেন্টারের কাছে শক্তিশালী গাড়ি বোমা হামলা চালায় তালেবান গোষ্ঠী। বিস্ফোরক বোঝাই অ্যাম্বুলেন্সে করে চালানো ওই হামলায় শতাধিক মানুষ প্রাণ হারিয়েছে। ওই হামলায় আরও ১৯১ জন আহত হয়েছে। তালেবান জঙ্গি গোষ্ঠী ওই হামলার দায় স্বীকার করেছে। সরকারি কর্মকর্তারা জঙ্গিদের লক্ষ্য ছিল বলে জানানো হয়েছে। সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন স্থানে হামলা চালাচ্ছে আইএস এবং তালেবান জঙ্গিরা।

এর আগে চলতি মাসের ২১ তারিখে একটি ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলে তালেবান জঙ্গিদের হামলায় কমপক্ষে ৪০ জন নিহত হয়েছে। এদের মধ্যে ১৪ জনই বিদেশি নাগরিক। ঘটনাস্থলে বন্দুকধারীদের সঙ্গে বিশেষ বাহিনীর প্রায় ১২ ঘণ্টা লড়াই চলে। দীর্ঘ লড়াইয়ের পর বন্দুকধারীদের প্রতিহত করে বিলাসবহুল ওই হোটেলের নিয়ন্ত্রণ নেয় নিরাপত্তা বাহিনী।

আফগান সরকারের পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে রয়েছে মাত্র ১২২টি জেলা। অর্থাৎ সরকারি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে মাত্র ৩০ ভাগ এলাকা। ওই এলাকাগুলোতে তালেবানের সক্রিয় উপস্থিতি নেই। কিন্তু তারপরেও এসব এলাকায় হামলা চালাচ্ছে তালেবান। এসব এলাকায় জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) উপস্থিতিও রয়েছে। তবে কোনো এলাকাই এখনো তাদের পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে যায়নি।

সর্বশেষ সংবাদ

সংরক্ষিত আসনে ৪৯ নারীকে নির্বাচিত ঘোষণা করল ইসি

ভ্যালেন্টাইনস ডের রাতে পোশাক কর্মীকে ‘দলবেঁধে ধর্ষণ’

ঈদগাঁওতে ওয়ার্ড আ’লীগ সভাপতির মৃত্যু : জানাজা সম্পন্ন

চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠকে জাতীয়করণের দাবী

১১ সদস্যের বিএসএফ প্রতিনিধি দল এখন বাংলাদেশে

কক্সবাজারে অটোবাইক মালিক চালক ও শ্রমিকদের বিক্ষোভ

আবুধাবি IDEX-2019 এ যোগ দিতে যুদ্ধ জাহাজ ধলেশ্বরী এখন আমিরাতে

আমিরাতে পৌছেছেন প্রধানমন্ত্রী : উৎফুল্ল প্রবাসিরা

ক্ষমা চাইবে না জামায়াত, নতুন উদ্যোগ নিয়ে সংশয়

রোহিঙ্গাদের ওপর নিপীড়ন হয়েছে, তবে সেনাবাহিনী জড়িত নয়: মিন হ্লায়াং

পেকুয়ায় ট্রাকের ধাক্কায় মটর সাইকেল চালক নিহত

বিকিনি পরা মডেলকে কামড়ালো শুকর, ভিডিও ভাইরাল

প্রাথমিকের পেনশন সুবিধা ১৫ দিনেই

চট্টগ্রামে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ঘুমন্ত ৮ জনের মৃত্যু

চকরিয়ার মেধাবী ছাত্র আরিফ বাঁচতে চায়

বিচার বিভাগ জন্মথেকেই বিচারক ও আইনজীবী নিয়ে একটি বৃক্ষ : জেলা জজ

ঝাড়ু ফুলে ফুলে ভাগ্য বদল 

মাদক প্রতিরোধে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ভূমিকা ও করণীয় 

‘তাদের সিবিএনে ভয়’

কক্সবাজার শহরে ভূমিকম্প অনুভূত