আফগানিস্তানের ৭০ ভাগ এলাকায় সক্রিয় তালেবান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
আফগানিস্তানের ৭০ শতাংশ জেলায় সক্রিয় রয়েছে তালেবান জঙ্গি গোষ্ঠী। দেশের চার ভাগ এলাকার পুরো নিয়ন্ত্রণ এবং বাকি ৬৬ ভাগ এলাকায় তাদের প্রকাশ্য উপস্থিতি বিদ্যমান রয়েছে। খবর রয়টার্স।

স্থানীয় এক হাজার ২শ মানুষের সঙ্গে কথা বলে যে জরিপ চালানো হয়েছে তা বিভিন্ন এলাকায় তালেবানের উপস্থিতি সম্পর্কে ন্যাটো যে বিবৃতি দিয়েছে তার চেয়ে অনেক বেশি নির্ভরযোগ্য বলে জানানো হয়েছে।

মঙ্গলবার ন্যাটোর এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০১৭ সালের অক্টোবর পর্যন্ত আফগানিস্তানের মাত্র ৪৪ ভাগ এলাকায় তালেবানের উপস্থিতি ছিল। কিন্তু তা বেড়ে এখন দাঁড়িয়েছে ৭০ শতাংশ।

এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে আফগানিস্তানে বেশ কয়েকটি ভয়াবহ হামলার ঘটনা ঘটেছে। তালেবান জঙ্গি গোষ্ঠী এবং আইএস এসব হামলার দায় স্বীকার করেছে।

গত শনিবার শহরের সিটি সেন্টারের কাছে শক্তিশালী গাড়ি বোমা হামলা চালায় তালেবান গোষ্ঠী। বিস্ফোরক বোঝাই অ্যাম্বুলেন্সে করে চালানো ওই হামলায় শতাধিক মানুষ প্রাণ হারিয়েছে। ওই হামলায় আরও ১৯১ জন আহত হয়েছে। তালেবান জঙ্গি গোষ্ঠী ওই হামলার দায় স্বীকার করেছে। সরকারি কর্মকর্তারা জঙ্গিদের লক্ষ্য ছিল বলে জানানো হয়েছে। সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন স্থানে হামলা চালাচ্ছে আইএস এবং তালেবান জঙ্গিরা।

এর আগে চলতি মাসের ২১ তারিখে একটি ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলে তালেবান জঙ্গিদের হামলায় কমপক্ষে ৪০ জন নিহত হয়েছে। এদের মধ্যে ১৪ জনই বিদেশি নাগরিক। ঘটনাস্থলে বন্দুকধারীদের সঙ্গে বিশেষ বাহিনীর প্রায় ১২ ঘণ্টা লড়াই চলে। দীর্ঘ লড়াইয়ের পর বন্দুকধারীদের প্রতিহত করে বিলাসবহুল ওই হোটেলের নিয়ন্ত্রণ নেয় নিরাপত্তা বাহিনী।

আফগান সরকারের পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে রয়েছে মাত্র ১২২টি জেলা। অর্থাৎ সরকারি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে মাত্র ৩০ ভাগ এলাকা। ওই এলাকাগুলোতে তালেবানের সক্রিয় উপস্থিতি নেই। কিন্তু তারপরেও এসব এলাকায় হামলা চালাচ্ছে তালেবান। এসব এলাকায় জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) উপস্থিতিও রয়েছে। তবে কোনো এলাকাই এখনো তাদের পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে যায়নি।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

টেকনাফে ২০ হাজার ইয়াবাসহ তিনজন আটক

বালুখালী শরণার্থী ক্যাম্প থেকে রোহিঙ্গা বৃদ্ধ অপহরণ, মুক্তিপণ দাবী

যানজটমুক্ত করতে মাঠে অটোবাইক মালিক চালকরা

বিতর্কিত ডিজিটাল আইন সংবিধান বিরোধী

কাঁদতে কাঁদতে মাঠ ছাড়লেন রোনালদো

ঘামের গন্ধে কাছে আসে যে সাপ

মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব ফের গ্রেফতার

সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্কবার্তা

এক নিয়োগ আবেদনে ৪০ কোটিরও বেশি আয়

আলোচনায় বসতে মোদিকে ইমরানের চিঠি

সম্পর্ক ভাঙলে শুধু মনই ভাঙে না  আত্মার শান্তিও নষ্ট করে…

চকরিয়ায় মোবাইল চুরির অভিযোগে যুবককে ধরে নিয়ে মাথান্যাড়া শাস্তি!

বিতর্ক প্রতিযোগিতাঃ বাংলায় দর্শন বিভাগ, ইংরেজিতে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগ চ্যাম্পিয়ন

খুটাখালী বিএনপি নেতা ডাঃ শফির পিতার ইন্তেকাল

ভারসাম্যপূর্ণ উন্নত বাংলাদেশ গড়ার কাজ করছে ইসলামী ব্যাংক

কক্সবাজার সদর মডেল থানা পুলিশের অভিযানে ৮জন আসামী গ্রেফতার

নির্বাচন কমিশনের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের পিতার মৃত্যু : বিভিন্ন মহলের শোক

পেকুয়ায় মা-মেয়ের উপর হামলার ঘটনার মূলহোতা আব্বাস গ্রেপ্তার

সরকারের হুমকিতে দেশ ছাড়েন এস কে সিনহা : বিবিসির খবর (ভিডিও)

রামুতে শহীদ লিয়াকত স্মৃতি বৃত্তি পরীক্ষা-২১ সেপ্টেম্বর