ফরিদুল আলম দেওয়ান, মহেশখালী:
ককস বাজারের মহেশখালীতে মায়ের সাথে অভিমান করে এক স্কুলছাত্রী গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে। ২৩ অক্টোবর সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টায় উপজেলার কুতুবজোম ইউনিয়নের ঘটিভাঙ্গা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ হাসপাতাল থেকে ছাত্রীর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেছে। আত্নহননকারী ছাত্রীর নাম শারমিন অাক্তার (১৪)।  সে ওই গ্রামের ফজল করিমের মেয়ে এবং ঘটিভাংগা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়  ( জুনিয়র হাই স্কুলে উন্নীত ) এর ৮ম শ্রেণীর ছাত্রী।

মহেশখালী থানার এস অাই সজীব দত্ত জানান, নিহত ছাত্রী শারমিন  বিকালে বিদ্যালয় সংলগ্ন তাদের বাড়ীর পেছনে তার জনৈক সহপার্টির সাথে একান্তে বসে কথা বলতে দেখে তার মা তার হাতে থাকা অাখ দিয়ে মাত্র দু’ টি বারি মেরে বকুনী দেয়। এতে ছাত্রী শারমিন রাগে ক্ষোভে মায়ের সাথে অভিমান করে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে নিজ বাড়ীর পাখার সাথে ওড়না প্যাঁচিয়ে আত্নহত্যা করে। বাড়ীর লোকজন ঘটনা জানার সাথে সাথে তাকে উদ্ধার করে মহেশখালী হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ লাশটি হাসপাতাল থেকে উদ্ধার করে ময়না তদন্তের ব্যবস্থা করে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •