সিবিএন ডেস্কঃ

জবানবন্দি গ্রহণ শেষে ইসলামি বক্তা আবু ত্ব-হা মোহাম্মদ আদনানসহ তিনজনকে পরিবারের কাছে হস্তান্তরের নির্দেশ দিয়েছেন রংপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত। আদালতের নির্দেশের পরই আবু ত্ব-হাকে তার মা আজেদা বেগমের হাতে তুলে দেয় পুলিশ।

শুক্রবার (১৮ জুন) রাত সাড়ে ৯টার দিকে মহানগর ডিবি কার্যালয় থেকে তাদের আদালতে নেওয়া হয়। রংপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এ কে এম হাফিজুর রহমানের আদালতে রাত সাড়ে ১১টা পর্যন্ত ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন তারা। এরপর তাদের পরিবারের জিম্মায় দেওয়ার আদেশ দেন আদালত।

এর আগে রাত সাড়ে ৯টার দিকে মহানগর ডিবি কার্যালয় থেকে আবু ত্ব-হাসহ তার সঙ্গীকে পুলিশের একটি ভ্যানে করে আদালতে নেওয়া হয়। আদালতের আদেশের পর রাত সাড়ে ১১টার দিকে আবু-ত্বহাকে তার মা আজেদা বেগম গ্রহণ করেন। অন্য দুইজনকে তার স্বজনরা গ্রহণ করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে রংপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের উপপরিদর্শক (সিএসআই) মনোয়ার হোসেন বলেন, তাদের জবানবন্দি বিচার-বিশ্লেষণ করে পরিবারের জিম্মায় দিয়েছেন আদালত। পরে স্বজনদের সঙ্গে বাড়ি ফেরেন তারা।

শুক্রবার (১৮ জুন) বিকাল ৫টার দিকে রংপুর মহানগর পুলিশের ক্রাইম ডিভিশনের উপ-কমিশনার আবু মারুফ হোসেন প্রেস ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের বলেন, ‘জিজ্ঞাসাবাদে আবু ত্ব-হা পুলিশকে জানিয়েছেন, ঘটনার দিন রাজধানীর গাবতলী থেকে স্ত্রীর মোবাইল নম্বরে কল দিয়ে সর্বশেষ কথা বলেন তিনি। এরপর মোবাইল ফোন বন্ধ করে দেন। সেখান থেকে চলে যান গাইবান্ধা সদর উপজেলার ত্রিমোহনীতে এক বন্ধুর বাড়িতে। এরপর থেকে তিনি কারও সঙ্গে যোগাযোগ করেননি। ব্যক্তিগত কারণে বন্ধুর বাড়িতে আত্মগোপনে ছিলেন। এখানে তার সঙ্গে দুই সঙ্গী ছিলেন। তারা হলেন গাড়িচালক আমির উদ্দিন ও মুহিত। অপর সঙ্গী মুজাহিদকে বগুড়ায় রেখে যান। এক সঙ্গীকে নিয়ে অপরজনকে বন্ধুর বাড়িতে রেখে শুক্রবার বিকালে রংপুর মহানগরীর মাস্টারপাড়া এলাকায় শ্বশুরবাড়িতে আসেন আবু ত্ব-হা। তার নিখোঁজ হওয়ার পেছনে কোনও গোষ্ঠী কিংবা কেউ জড়িত ছিলেন না বলে আমরা ধারণা করছি।’
উপ-কমিশনার আবু মারুফ হোসেন আরও বলেন, ‘খবর পেয়ে তাকে শ্বশুরবাড়ি থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। এরপর রংপুর মহানগর পুলিশের কোতোয়ালি থানা থেকে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের কার্যালয়ে নেওয়া হয়। সেখানে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে দেশ কিংবা রাষ্ট্রবিরোধী অথবা ষড়যন্ত্রমূলক কোনও উদ্দেশ্য সম্পর্কে এখন পর্যন্ত জানা যায়নি।’
নিখোঁজের আট দিনের মাথায় আবু ত্ব-হা আদনানকে শুক্রবার বিকাল ৩টার দিকে রংপুর নগরীর মাস্টারপাড়া এলাকার শ্বশুরবাড়ি থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। গত ১০ জুন রাত থেকে আবু ত্ব-হা আদনান নিখোঁজ ছিলেন। এ ঘটনায় তার মা রংপুর কোতোয়ালি থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •