এম. জুবাইদ, পেকুয়া :

কক্সবাজারের পেকুয়ায় ১৮২০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট সহ এক যুবককে আটক করেছে পেকুয়া থানা পুলিশ।

(১৭জুন) রাত পুলিশের একটি দল অভিযান চালিয়ে উপজেলার বারবাকিয়া ইউনিয়নের বারাইয়াকাঁটা স্টেশনের সামনে থেকে ইয়াবাসহ শাহেদুল ইসলাম নামে একজনকে গ্রেফতার করে।শাহেদ টেকনাফ উপজেলার নোয়াপাড়া এলাকার ফোরকানের পুত্র।

জানা যায়, শাহেদ সন্ধ্যা ৬ টার দিকে বারাইয়াকাঁটা এলাকার ছব্বির আহমদের পুত্র জয়নাল আবেদীনের বাড়ি থেকে জয়নালসহ এক সাথে বের হয়। প্রথমে জয়নাল একটি রিক্সা নিয়ে এবিসি সড়কের দিকে চলে যায়। সাহেদ যাওয়ার জন্য  একটি শপিং ব্যাগ নিয়ে আরেকটি রিক্সাকে দাঁড়াতে বলে। এসময় তাকে দেখে স্থানীয় লোকজনের সন্দেহ হলে তার ব্যাগ খুলে  টেপ মুড়ানো বান্ডিলে  ইয়াবা ট্যাবলেট দেখতে পায় । এই খবরে জয়নালসহ সিন্ডিকেটের অন্য সদস্যরা পালিয়ে যায়।

পরে স্থানীয় পেকুয়া উপজেলা যুবলীগের সদস্য মুহাম্মদ ফোরকান পেকুয়া থানার তদন্ত কর্মকর্তা কানন সরকারকে মোবাইলে জানালে তিনি পুলিশ পাঠিয়ে ঘটনাস্থল থেকে ইয়াবাসহ শাহেদকে গ্রেফতার করেন।

সাহেদ জানিয়েছেন,তিনি জয়নাল আবেদীনের স্ত্রী জুলেখা বেগমের দূরসম্পর্কের ভাগিনা। গত তিন দিন আগে টেকনাফ থেকে ইয়াবা নিয়ে জয়নালের
বাড়িতে উঠেছেন। এখান থেকে জয়নালসহ মিলে ইয়াবা দেশের বিভিন্ন স্থানে পাঠিয়ে দেন।

উপজেলা যুবলীগের সদস্য ফোরকান ও স্থানীয় ইউপি সদস্য সুত্রে জানা যায়, জয়নালের শ্বশুর বাড়ি টেকনাফ হওয়ায়  সেখান থেকে ইয়াবা এনে পাইকারি হারে দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্রি করছে। কয়েক বছর আগে জয়নাল দম্পতি ইয়াবা নিয়ে জেল খেটে এসেছে।  জয়নালের ছোট বোনের জামাই শিলখালী ইউনিয়নের আলেকদিয়া পাড়ার গিয়াস উদ্দীনও ইয়াবা নিয়ে পুলিশের কাছে গ্রেফতার হয়ে সদ্য জেল খেটে এসেছে।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে পেকুয়া থানার তদন্ত ওসি কানন সরকার বলেন,আমরা ইয়াবা সহ একজনকে গ্রেফতার করেছি। আর অন্য কেউ জড়িত থাকলে ছাড় দেওয়া হবে না।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •