সিবিএন ডেস্ক:
ভাসানচর থেকে চতুর্থ দফায় সন্দ্বীপ পালিয়ে আসার সময় ১৪ রোহিঙ্গা নাগরিককে আটক করেছে স্থানীয় জনগণ। রোববার (৩০ মে) ভোর সাড়ে চারটায় মাইটভাঙ্গা ইউনিয়নের চৌধুরী বাজার ১ নম্বর ওয়ার্ডের বেড়িবাঁধ সংলগ্ন নদীর কূল থেকে তাদের আটক করা হয়।
জানা যায়, আটক রোহিঙ্গারা দালালের মাধ্যমে শনিবার সন্ধ্যায় ভাসানচর রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে নৌকা দিয়ে সন্দ্বীপ উপকূলে আসে। তারা সন্দ্বীপ হয়ে কক্সবাজার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে যাওয়ার জন্য ভাসানচর থেকে পালিয়ে আসে। আটক রোহিঙ্গাদের ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিজান রাতে গ্রাম পুলিশের হেফাজতে রাখেন। পরে রোববার সকালে তাদের পুলিশের হাতে তুলে দেয়া হয়।
আটক রোহিঙ্গারা হল আয়াতুল করিম (৩০), আশ্রাফ উল্লা (৮), নজিম উল্ল্যাহ (৭), ইয়াসমিন আরা (২৯), সালেখা বেগম (১৪), তাছলিমা (১৬), উম্মে (১৭), মুশফিকা (১৬), মো. সাফায়েত (১৬), অলি উল্লা (১২), মো. আনস (১০), রোজিনা (১৫), শুকতারা (১৫) ও মো. ইমতিয়াজ (১৮)।
সন্দ্বীপ থানার ওসি বশির আহাম্মদ খান বলেন, মাইটভাঙ্গা ইউনিয়নের নদীর কূল থেকে আটক রোহিঙ্গাদের থানায় আনা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •