মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজার জেলা পুলিশের ডিডেক্টিভ ব্রাঞ্চ (ডিবি) এক অভিযান ১০ হাজার পিচ ইয়াবা, ইয়াবা বিক্রির ২৫ লক্ষ নগদ টাকা সহ এক মহিলাকে আটক করেছে। কক্সবাজার জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) রেজওয়ান আহমেদ এর নেতৃত্ব সোমবার ২ মার্চ দিবাগত সারারাত রামু উপজেলার রাজারকুল ইউনিয়নের নারিকেল বাগান এলাকায়
মোহাম্মদ জয়নালের বাড়িতে এক অভিযান চালিয়ে তার স্ত্রী সামিরা বেগমকে (২৫) উল্লেখিত পরিমাণ নগদ টাকা ও ইয়াবা টেবলেট সহ হাতেনাতে আটক করা হয়। বিষয়টি ডিবি’র ভারপ্রাপ্ত ওসি শেখ আশরাফুজ্জামান সিবিএন-কে নিশ্চিত করেছেন।

ওসি শেখ আশরাফুজ্জামান আরো জানান, আটককৃত ইয়াবাকারবারী দীর্ঘদিন ধরে মাদক ব্যবসায় জড়িত ছিল।
এ বিষয়ে ডিবি’র ইনস্পেকটর রাজীব সুত্র ধর বাদী হয়ে মঙ্গলবার ৩ মার্চ রামু থানায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নম্বর : ০৩/২০২০ ইংরেজি।

ডিবি’র ইনস্পেকটর মামলার বাদী রাজীব সুত্র ধর সিবিএন-কে জানান, ইয়াবার গডফাদারদের নাম সহ আরো তথ্য উপাত্ত জানতে আসামি সামিরা বেগমের বিরুদ্ধে আদালতের মাধ্যমে রিমান্ড চাওয়া হবে।

রামু থানা কর্তৃপক্ষ সিবিএন-কে জানান, আসামীকে কোর্ট ইন্সপেক্টরের মাধ্যমে মঙ্গলবার বিকেলে আদালতে চালান দেওয়া হয়েছে। বিজ্ঞ আদালত আসামীকে চার্জ ওয়ারেন্ট মূলে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দিলে একইদিন সন্ধ্যায় সামিরা বেগমকে কক্সবাজার জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়। জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) রেজওয়ান আহমেদের নেতৃত্বে পরিচালিত এই সফল অভিযানে ডিবি’র ভারপ্রাপ্ত ওসি শেখ আশরাফুজ্জামান, ইনস্পেকটর মিজানুর রহমান, জনি দেবদাশ, সাজেদুল সহ বিশেষ প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ডিবি’র চৌকস একটি দল অংশ নেন।

এদিকে, সাড়াষী এই অভিযানে নেতৃত্বদানকারী জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) রেজওয়ান আহমেদ সিবিএন-কে বলেন, মাদক কারবারিরা যতই শক্তিশালী হোক তাদেরকে আইনের জালে একদিন আটকাতেই হবে। তাই সময় থাকতে সর্বনাশা ইয়াবা ব্যবসা থেকে সরে গিয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে সকল মাদক ব্যবসায়ীর প্রতি কঠোর হুঁশিয়ারী উচ্চারণ করেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) রেজওয়ান আহমেদ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •