সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:
১০ ডিসেম্বর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী (মুজিববর্ষ)’র ক্ষণগণনা অনুষ্ঠান যথাযোগ্য মর্যাদায় ব্যাপক উৎসাহ উদ্দিপনায় উদযাপনের কর্মসূচী গ্রহণ ও বাস্তবায়নের লক্ষ্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কক্সবাজার জেলা শাখার এক বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, বঙ্গবন্ধুর জীবনই বাংলাদেশের ইতিহাস। তিনি ১৯৪৯ সালে ছাত্রলীগ প্রতিষ্ঠা করেন। ৫২ এর ভাষা আন্দোলনে নেতৃত্ব প্রদান, ৫৪ এর যুক্তফ্রন্ট নির্বাচনে জয়লাভ, ৫৮ সালে আইয়ুব বিরোধী আন্দোলন, ৬২ সালের শিক্ষা আন্দোলন, ৬৬ সালে ৬ দফা প্রদান, ৬৯ এর গণঅভুত্থান, ৭০ এর নির্বাচনে তাঁর নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ নিরংঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভ করে। তাঁর স্বাধীনতার ঘোষণার মধ্য দিয়ে জাতি, ধর্ম নির্বিশেষে সকলেই মুক্তিযুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েন। ৭১ সালের ১৬ই ডিসেম্বর দেশ স্বাধীনতা লাভ করে। তিনি বাঙ্গালী জাতিকে পরাধীনতা হতে মুক্তি দিয়েছিলেন এবং ৭২ সালের ১০ জানুয়ারী পাকিস্তান কারাগার হতে মুক্তি পেয়ে স্বাধীন বাংলায় প্রত্যাবর্তন করেন। আগামী ১৭ মার্চ জাতির পিতার জন্মশত বার্ষিকী। সরকারের ঘোষণা মতে মুজিব বর্ষ শুরু হবে ১৭ মার্চ হতে। ক্ষণগণনা অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১০ জানুয়ারী।

এই ক্ষণগণনা অনুষ্ঠানে কক্সবাজারের সর্বস্তরের জনগণকে স্বতঃস্পূতভাবে অংশ গ্রহণ করার আহবান জানান। নেতৃবৃন্দ বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী (মুজিববর্ষের) ক্ষণগণনা অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহণকারীরা ইতিহাসের অংশ হয়ে থাকবেন।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট সিরাজুল মোস্তফার সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মেয়র মুজিবুর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত বিশেষ বর্ধিত সভায় বক্তব্য রাখেন-জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ চৌধুরী, সাংসদ আশেক উল্লাহ রফিক, সাংসদ কানিজ ফাতেমা আহমদ, অধ্যাপিকা এথিন রাখাইন, এডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী, এডভোকেট বদিউল আলম সিকদার, রেজাউল করিম, মাহাবুবুল হক মুকুল, এডভোকেট রনজিত দাশ, নুরুল আবছার চেয়ারম্যান, এডভোকেট আব্বাস উদ্দিন চৌধুরী, এড. আয়াছুর রহমান, নাজনীন সরওয়ার কাবেরী, খোরশেদ আলম, খোরশেদ আলম কুতুবী, ইউনুছ বাঙ্গালী, অধ্যাপক প্রিয়তোষ শর্মা চন্দন, এস.এম. কামাল উদ্দিন, হেলাল উদ্দিন কবির, কমর উদ্দিন আহমদ, এড. তাপস রক্ষিত, এম.এ. মনজুর, এড. মমতাজ আহমদ, শফিকুল কাদের শফি, ড. নুরুল আবছার, এড. অরূপ বড়ুয়া তপু, শফিউল আলম চৌধুরী, আলহাজ্ব শফিকুর রহমান কোম্পানী, মিজানুর রহমান, আমিনুর রশিদ দুলাল, উপজেলা সভাপতি/সাধারণ সম্পাদকের মধ্যে-সোহেল সরওয়ার কাজল, মোঃ আবু তালেব, গিয়াস উদ্দিন চেয়ারম্যান, নুরুচ্ছফা বি.কম, সিরাজুল ইসলাম বাবলা, নুরুল বশর, শামশুল আলম মন্ডল, সহযোগী সংগঠনের মধ্যে-সোহেল আহমদ বাহাদুর, জহিরুল ইসলাম সিকদার, শহিদুল হক সোহেল, রহিম উদ্দিন, রশিদ আহমদ, আতিক উদ্দিন চৌধুরী, শফিউল্লাহ আনছারী, আয়েশা সিরাজ, তাহমিনা চৌধুরী লুনা, আরিফুল মওলা, হারুন-অর-রশিদ, আসিফুল মওলা, এ.বি. সিদ্দিক খোকন, মিজানুর রহমান, মোহাম্মদ জাকারিয়া, শাখাওয়াত হোসাইন প্রমুখ।

সভায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ২১ তম জাতীয় সম্মেলনে বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা পুনরায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হওয়ায় এবং জননেতা ওবায়দুল কাদে এম.পি পুনরায় সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ায় কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে অভিনন্দন জানানো হয়।

সভায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানকের আশু রোগ মুক্তি কামনা করা হয় এবং কক্সবাজার জেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি আয়েশা সিরাজের পুত্র আলী আকবর ডিসেন্ট এর অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করা হয়।

 

জেলা আওয়ামী লীগের কর্মসূচী:
১০ জানুয়ারি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস ও জন্ম শতবার্ষিকী (মুজিব বর্ষ) উদযাপন ও ক্ষণগণনা কার্যক্রম যথাযোগ্য মর্যাদায় ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মাধ্যমে পালনের লক্ষ্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কক্সবাজার জেলা শাখা দিনব্যাপী কর্মসূচী গ্রহণ করেছে। কর্মসূচীর মধ্যে সকাল ৭টায় দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, সকাল ১০টায় স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে মাল্যদান ও আলোচনা সভা এবং বিকাল ৩টায় সরকারি বিভিন্ন কর্মসূচীতে যোগদান।

কর্মসূচীসমূহে জেলা আওয়ামী লীগের সকল কর্মকর্তা ও সদস্যবৃন্দ কক্সবাজার, সদর ও পৌর আওয়ামী লীগের এবং সহযোগী সংগঠনের সকল নেতাকর্মীদের যথাসময়ে উপস্থিত হওয়ার জন্য কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এড. সিরাজুল মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক মেয়র মুজিবুর রহমান বিশেষ ভাবে অনুরোধ জানিয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •