সিবিএন ডেস্ক:
ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ বলেছেন, এ বছর হজের খরচ বাড়েনি। বরং গত বছরের চেয়ে ২৪ হাজার ৪১০ টাকা কমেছে।

রোববার (২৪ মার্চ) সচিবালয়ে নিজ দফতরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ২০১৮ সালের প্যাকেজ-১ এর হজযাত্রীদের সর্বমোট ব্যয় নির্ধারণ করা হয়েছিল তিন লাখ ৯৭ হাজার ৯২৯ টাকা। এ বছর বিমান ভাড়া ২০ হাজার টাকা বাড়িয়ে প্রস্তাব করা হয়েছিল এক লাখ ৪৮ হাজার ১৯১ টাকা। এর সঙ্গে সৌদি সরকারের কর বৃদ্ধি হয়েছে ২৪ হাজার ৯৮১ টাকা। সে হিসেবে ২০১৯ সালের প্যাকেজ-১ এর হজযাত্রীদের জন্য সর্বমোট খরচ প্রস্তাব করা হয়েছিল চার লাখ ৪২ হাজার ৯১০ টাকা। কিন্তু মন্ত্রিপরিষদ প্যাকেজ-১ এর হজযাত্রীদের জন্য নির্ধারণ করেছে চার লাখ ১৮ হাজার ৫১৬ টাকা। সে হিসেবে প্রকৃত অর্থে গত বছরের চেয়ে ২৪ হাজার ৪১০ টাকা ব্যয় কমেছে।

তিনি বলেন, মূলত সৌদি সরকার সর্ভিস চার্জ বৃদ্ধি, অতিরিক্ত কর আরোপ এবং পরিবহন ব্যয় গত বছরের চেয়ে দ্বিগুণের বেশি করায় ১৫ হাজার ৩২৬ টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে। গত বছরের অতিরিক্ত সার্ভিস চার্জের উপর ১২ শতাংশ কর আরোপ করায় তিন হাজার ৭০৯ টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে।

মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আরও বলেন, প্যাকেজ-১ এর হজযাত্রীদের জন্য এ বছর শতভাগ বৃদ্ধি পাওয়ায় ট্রেন ভাড়া হয়েছে পাঁচ হাজার ৯৪৫ টাকা। এছাড়া সৌদি সরকার বিভিন্ন খাতে সর্বমোট ২৫ হাজার ছয় টাকা বৃদ্ধি করেছে। এ জন্যই হজের খরচ বেড়েছে।

সম্প্রতি মিলাদ-মাহফিল নিয়ে ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর বিরূপ মন্তব্যের বিষয়ে বলেন, ‘যারা এই ধরনের মিথ্যা অভিযোগ করছেন, তারা বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন। আমি এর নিন্দা জানাচ্ছি। আমি নিজ উদ্যোগেই মিলাদের আয়োজন করব। আমাকে হেয় করতেই কেউ কেউ মিথ্যা প্রচারণা চালাচ্ছেন।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •