cbn  

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:
বিশিষ্ট নারী নেত্রী, পিটিআই’র সাবেক সুপার ও এবিসি ঘোনা মসজিদে বায়তুল্লাহ কমপ্লেক্স পরিচালনা কমিটির সভাপতি অধ্যক্ষ আলহাজ্ব মোহাম্মদ মমতাজুল হকের সহধর্মিনী হোসনা মমতাজ ছিলেন, বহুগুনে গুনান্বিত একজন মহিয়সী নারী। যিনি ছিলেন একাধারে রাজনীতিবিদ, সমাজকর্মী, স্বজ্জ্বন, মানবাধিকার সংগঠক, দানশীল ও নারী অধিকার আদায়ে সর্বদা সচেতন একজন মহিলা। অসাধারণ প্রতিভা সম্পন্ন হোসনা মমতাজের মৃত্যুতে এলাকাবাসী একজন তাদের আত্মার আত্মীয়কে হারাল। তিনি সহজেই সব পর্যায়ের মানুষকে আপন করে নিতে পারতেন। সকল মানুষের সুখে দুঃখে সাধ্যমত পাশে দাঁড়াতেন। তাই হোসনা মমতাজের মৃত্যুর শূন্যতা সহজে পূরন হবার নয়।
হোসনা মমতাজের মৃত্যুতে কক্সবাজার পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের এবিসি ঘোনা মসজিদে বায়তুল্লাহ কমপ্লেক্স পরিচালনা কমিটির উদ্যোগে ৩ দিন ব্যাপী শোক কর্মসূচীর শেষ দিনে শোক সভায় বক্তারা একথা বলেন।
মসজিদে বায়তুল্লাহ কমপ্লেক্স পরিচালনা কমিটির সিনিয়র সহ সভাপতি হালিমুল হকের সভাপতিত্বে ২ নভেম্বর শুক্রবার জুমার নামাজের পর মসজিদ প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত শোক সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তৃতা করেন মসজিদে বায়তুল্লাহ কমপ্লেক্সের মতোওয়াল্লী এডভোকেট মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী।
শোক সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন, মসজিদে বায়তুল্লাহ কমপ্লেক্সের খতিব হাফেজ মাওলানা মোহাম্মদ ফারুক, মাওলানা আজিজুল হক, কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক একেএম ছানাউল্লাহ, কমিটির কোষাধ্যক্ষ মাষ্টার নুরুল আলম প্রমুখ। সভায় কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বক্তৃতা করেন, মরহুমা হোসনা মমতাজের স্বামী আলহাজ্ব অধ্যক্ষ মোহাম্মদ মমতাজুল হক ও নাতি শেফায়েত কামাল সৌরভ ।
উল্লেখ্য, হোসনা মমতাজ গত ৩০ অক্টোবর রাত ৯’১৫ মিনিটে কক্সবাজার শহরের আল ফুয়াদ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। তার মৃত্যুতে পালিত ৩ দিন ব্যাপী কর্মসূচীর মধ্যে ছিল, ব্যানার উত্তোলন, প্রতিদিন মসজিদে নামাজের পর বিশেষ মোনাজাত, খতমে কোরআন, কবর জেয়ারত, দোয়া মাহফিল, শোক সভা, বিশেষ মোনাজাত ও তবরুক বিতরণ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •