মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

বিএনপি’র চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া রিউমাটো আর্থাটাইটিস রোগের কারণে তাঁর বাম হাত বেঁকে গেছে, বাম কাঁধ নাড়তে পারেননা, হাত ঝিম ঝিম করছে। বিএসএমইউ তে বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য গঠিত চিকিৎসক বোর্ডের প্রধান অধ্যাপক ডাঃ এম এ জলিল ৮ অক্টোবর সোমবার এক প্রেস ব্রিফিং এ তথ্য জানান। বেগম খালেদা জিয়া গত ৩০ বছর ধরে রিউমাটো আর্থাটাইটিস রোগে ভোগছেন। চিকিৎসায় অনিয়ম, ব্যঘাত ও রোগ নিয়ন্ত্রণে নাথাকায় তাঁর শরীরে এ জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে বলে তিনি জানান। শরীরের ঐ অংশ সমুহে অনুভূতি অনেকটা কমে গেছে। বেগম খালেদা জিয়ার প্রায় ২০ বছর আগে থেকেই ডায়াবেটিস থাকায় তিনি আগে ইনসুলিন নিতেন, কিন্তু এখন তিনি ইনসুলিন নিতে চাননা। ইতিমধ্য তাঁর শরীরে সুগার শুণ্য হয়ে হাইপোতে ভোগেছিল। যা খুবই আশংকাজনক। তিনি এখন প্রেসারের ওষুধ খান। বিএসএমইউ’তে অনুষ্ঠিত ব্রিফিং এ ডাঃ জলিল জানান, এ রোগটা হচ্ছে, একধরনের বাত ও গিট গিটে ব্যাথা। বেগম জিয়ার ঘাড়ে ও কোমরে প্রচন্ড ব্যাথা রয়েছে, হিপজয়েন্টে আর্থাইটিস আছে, ২ হাঁটু আগে থেকেই রিপ্লিসমেন্ট করা আছে।
উল্লেখ্য, উচ্চ আদালতের আদেশে বেগম খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য গত ৬ অক্টোবর বিএসএমইউ তে আনা হয়। সেখানে ৬১২ নং কেবিনে তাঁর জন্য গঠিত চিকিৎসক বোর্ডের অধীনে তিনি চিকিৎসাাধীন রয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •