শাহীন মাহমুদ রাসেলঃ

মাদক সামাজিক ব্যাধি। তরুণ ও যুবকদের একটি অংশ এই ব্যাধিতে আক্রান্ত। ধীরে ধীরে এটি ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে। সামাজিকভাবে এখনই যদি প্রতিরোধ গড়ে তোলা না যায় তবে তরুণ প্রজন্মের জন্য অনাকাঙ্ক্ষিত ভবিষ্যত বয়ে আনবে। শুক্রবার জুমায় কক্সবাজার সদরের ঝিলংজা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের সিকদার পাড়ার জামে মসজিদে আয়োজিত মাদকবিরোধী মত বিনিময় সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন। সভার আয়োজন করেছিল ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধিরা।

চল যাই যুদ্ধে, মাদকের বিরুদ্ধে’ এই স্লোগান নিয়ে খরুলিয়া’য় মাদকবিরোধী মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। কক্সবাজার সদর উপজেলার ঝিলংজা ইউনিয়নকে মাদকমুক্ত করতে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান টিপু সুলতান ও সদস্য শরীফ উদ্দিন আয়োজনে মতবিনিময় সভায় বিভিন্ন রাজনৈতিক এবং সমাজকর্মী এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

সভায় বক্তব্য রাখেন চেয়ারম্যান টিপু সুলতান সদস্য শরীফ উদ্দিন, আব্দুর রশিদ, নাছির উদ্দিন, মসজিদ কমিটির সভাপতি মৌলানা মাঈন উদ্দিন, খরুলিয়া কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের সভাপতি মৌলানা আমিনুল হক, বিশিষ্ট রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব মোস্তফা কামাল, ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ আলম, মতবিনিময় সভায় বক্তারা মাদক নির্মূলে প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি, রাজনীতিবিদের পাশাপাশি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলোকে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানান।

মাদকের আগ্রাসনে দেশের সম্ভাবনাময় যুবসমাজ বিপথগামী হচ্ছে। যা পরিবার, সমাজ ও রাষ্ট্রকে ক্ষতিগ্রস্ত করছে। মাদক বর্তমানে একটি ভয়াবহ সামাজিক ব্যাধিতে পরিণত হয়েছে। তরুণ সমাজের বিশাল একটি অংশ এ ব্যাধিতে আক্রান্ত। এ ভয়াবহ ব্যাধির করাল গ্রাস থেকে আমাদের তরুণদের রক্ষার করতে সামাজিক সচেতনতা ও সামাজিক আন্দোলনের কোন বিকল্প নেই। তাঁরা আরো বলেন– প্রশাসনকে এ ব্যাপারে জিরো টলারেন্স অবলম্বনের জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তাই প্রতিটি পাড়া মহল্লায় মাদকাসক্ত তরুণদের ব্যাপারে পদক্ষেপ নেয়ার ক্ষেত্রে সবার সহযোগিতা কামনা করেন তাঁরা। গত ৭ এবং ১৪ই সেপ্টেম্বর ইউনিয়ন পরিষদের জনপ্রতিনিধিদের উদ্যোগে খরুলিয়া নয়া পাড়া এবং বেপারী পাড়ায় “মাদক নিয়ন্ত্রণ ও মাদক রোধে সমাজের ভূমিকা” শীর্ষক আলোচনা সভার আয়োজন করেছিলেন, এবং বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •