এম.মনছুর আলম,চকরিয়া :
জোহরা খাতুন। বয়স ৪০ এর কাছাকাছি। তার বাড়ি কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার ডেমুশিয়া ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ড়ের আম্বার ডেরা গ্রামে। মানুষের বাসা বাড়িতে দিন মজুরী করে তিন সন্তানের জন্য খাবার যোগাড় করে। এখন বর্ষাকাল ও মহামারী করোনার প্রাদুর্ভাবের কারণে কোথাও কাজও মিলছেনা। খেয়ে না খেয়ে বা অর্ধাহারে কোনমতে সন্তানদের নিয়ে দিন পার করছেন অতি দরিদ্র নারী জোহরা খাতুন। বসবাসের জন্য যে ঘরটি ছিল, সেটিও পরিত্যক্ত হয়ে গেছে। বৃষ্টি হলেই সারারাত আর ঘুমাতে পারেনা জোহরা ও তার তিন সন্তান।
ছবিতে জোহরার পিছনে যে পরিত্যক্ত ঘরটি দেখা যাচ্ছে, সেখানে জোহরা খেয়ে না খেয়ে তিন সন্তান নিয়ে অতি কষ্টে বসবাস করছেন।
দরিদ্র জোহরা জানান, বিগত ৮/১০ বছর পূর্বে স্বামী তাকে ও তিন সন্তানকে ফেলে চলে যায়। তার তিন সন্তান স্থানীয় বিদ্যালয়ে পড়ালেখা করছেন। প্রতিনিয়তই চরম অভাবে দিন পার হচ্ছে। টাকার অভাবে মাথা গোঁজার একমাত্র ঠাঁই পরিত্যক্ত ঘরটিও মেরামত করতে পারছেনা। বৃষ্টি হলেই তিন সন্তানকে নিয়ে না ঘুমিয়ে সারারাতই জেগে থাকতে হয়। কস্টের যেন সীমা থাকেনা।

জোহরা আরো জানান, লক্ষাধিক টাকা হলেই তার ঘরটি মেরামত করতে পারবে। তাই এই চরম দুরব্যস্থায় দরিদ্র নারী জোহরা তার পরিত্যক্ত ঘরটি মেরামতের জন্য সমাজের স্থানীয় বিত্তবান ও স্বচ্ছল লোকজনের কাছ থেকে সহায়তা কামনা করেছেন। তাই আসুন আমরা একজন দরিদ্র নারী জোহরা ও তার তিন সন্তানের মাথা গোঁজার ঠাঁই পরিত্যক্ত ঘরটি মেরামতে যার যার সাধ্যমতে এগিয়ে আসি।

জোহরার কাছে সাহায্য পাঠানোর নাম্বারঃ 01575061911/ 01670886669 (বিকাশ)