আবদুল করিম বিটুঃ

বন্ধু মানে তোমায় মনে রাখা,
বন্ধু মানে তোমার সফলতার সবার সফলতা,
বন্ধু মানে তোমার দুঃখে সবায় ব্যাথিত হওয়া,
বন্ধু মানে সুখে দুঃখে আজীবন একসাথে পথ চলা এই শোলককে সামনে রেখে
জেলার ৮ উপজেলার এসএসসি ৯৭ সালের বন্ধুদের নিয়ে আত্মপ্রকাশ হলো একটি অরাজনৈতিক সংগঠন এসএসসি ৯৭’কক্সবাজার জেলা।

৬ ফেব্রুয়ারি জুমাবার ২০২০ কক্সবাজার শহরের আনন্দ মাল্টিমিডিয়া স্কুল ক্যাম্পাসে প্রথম আনুষ্ঠানিক গেট টুগেদার অনুষ্ঠিত হলো।

উক্ত অনুষ্ঠানে জেলার আট উপজেলার বন্ধুরা অংশগ্রহণ করেন। এছাড়াও তানজিনার নেতৃত্বে চট্টগ্রামের বন্ধুরা অতিথি হিসেবে অংশ গ্রহণ করেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত ও জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হয়।
এতে ৯৭ এর প্রয়াত সকল বন্ধুদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

সমন্বয়কদের পক্ষ থেকে শাহেদুল ইসলাম এবং মোরশেদ আলম,অ্যাডভোকেট সেতু স্বাগত বক্তব্য রাখেন।

অ্যাডভোকেট কামরুল হাসান এবং মোহাম্মদ খোরশেদ আলমের পরিচালনায়
আট উপজেলা থেকে আগত বন্ধুদের মধ্য থেকে উপজেলা প্রতিনিধি হিসেবে বক্তব্য রাখেন রামু থেকে আদনান সুলতান চৌধুরী, সাদিকুর রহমান
উখিয়া থেকে নুরুল আমিন, নুরুল হোসেন
টেকনাফ থেকে
এডভোকেট জিয়াউর রহমান,
সদর থেকে ইদ্রিস মামুন, মনির হোসেন
মহেশখালী থেকে সরওয়ার কামাল, রাশেদুল ইসলাম
চকরিয়া থেকে
মনসুর মহসিন,আবদুল করিম বিটু

কুতুবদিয়া থেকে অ্যাডভোকেট কামরুল হাসান বক্তব্য প্রদান করেন।

দীর্ঘ ২৩ বছর পরে হলেও সকল বন্ধুদের একত্র করে যে উদ্যোগ গ্রহণ করায় আগত বন্ধুরা আয়োজক বন্ধুদের বিশেষ ধন্যবাদ জানান এবং এই উদ্যােগ অবশ্যই প্রশংসার দাবিদার।
অনেকে পুরনো বন্ধুদের পেয়ে আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েন।

চকরিয়ার বন্ধু আবুল কাশেম বলেন, আজ আমার মনে হচ্ছে আমি সে ৯৭ তে ফিরে আসলাম,যার সাতে ফিরে পেলাম জেলার এক ঝাঁক বন্ধু।

প্রত্যেকে একে অপরের সুখে দুঃখে একত্রে থাকার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন এবং সংগঠনের সামগ্রিক সমৃদ্ধি কামনা করেন।

উক্ত গেট টুগেদার অনুষ্ঠানে ৩৫০জন বন্ধু অংশগ্রহণ করেন।আগামীতে হাজারের অধিক সংখ্যক বন্ধু অংশগ্রহন করবে বলে উপজেলা প্রতিনিধিরা সকল বন্ধুদের কথা দেন।