নীতিশ বড়ুয়া, রামু :
প্রয়াত ভদন্ত প্রজ্ঞামিত্র মহাথের’র স্মৃতি বিজড়িত উত্তর মিঠাছড়ি প্রজ্ঞামিত্র বনবিহারে কঠিন চীবর দানোৎসবের মধ্যদিয়ে রামুতে সমাপ্ত হয়েছে চলতি বছরের দানশ্রেষ্ঠ শুভ কঠিন চীবর দানোৎসবের।
১১ নভেম্বর, সোমবার যথাযথ ধর্মীয় মর্যাদায় দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে মহতী এ দানোৎসবের সু-সম্পন্ন হয়।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি বলেছেন– মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বিশ্বে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির অনন্য দেশ হিসেবে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে বাংলাদেশ। যেকোন মূল্যে আমরা এ সম্প্রীতি রক্ষা করবো। তিনি বলেন, ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারে সকলকে সতর্ক থাকতে হবে। এর অপব্যবহার যেন সমাজকে বিনষ্ট করতে না পারে সে ব্যাপারেও সকলকে সংযত থাকতে হবে। অন্যকোন দেশ বা এলাকার ভিন্ন ঘটনার বিষয়ে নিজ নিজ এলাকায় সম্প্রীতি বজায় রাখতে সর্বোচ্চ ধৈয্য ধারন করতে হবে এবং নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রশাসনকে সহযোগীতা করতে হবে।
চট্টগ্রামের চন্দনাইশ সুমনাচার বিদর্শনারাম বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ ভদন্ত শীল রক্ষিত মহাথের’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মহতী ধর্মায়োজনে প্রধান ধর্মদেশকের ধর্মদান করেন, চট্টগ্রামের চন্দনাইশ উপজেলার সুচিয়া বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ ভদন্ত অতুলানন্দ মহাথের। বিশেষ ধর্মদেশকের দেশনা করেন চকরিয়া মানিকপুর নব বিজয়ানন্দ বিহারের অধ্যক্ষ এম. প্রজ্ঞামিত্র ভিক্ষু।
কক্সবাজার জেলা বৌদ্ধ সুরক্ষা পরিষদের সভাপতি প্রজ্ঞানন্দ থের’র সঞ্চালনায় পুণ্যায়োজনের উদ্বোধনী ধর্মদেশনা করেন, প্রজ্ঞামিত্র বনবিহারের অধ্যক্ষ সারমিত্র মহাথের। অন্যান্যদের মধ্যে ধর্মদেশনা করেন, ভদন্ত শীলরত্ন মহাথের, ভদন্ত শীলানন্দ মহাথের, ভদন্ত শীলপ্রিয় থের, ভদন্ত ধর্মমিত্র থের প্রমুখ ভিক্ষু সংঘ।
এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাষ্টি এড. দীপংকর বড়ুয়া পিন্টু, রামু উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. সালাহ উদ্দন, কীর্তনীয়া বিমল বড়ুয়া, সংগীতশিল্পী রাজিব বড়ুয়া। পঞ্চশীল প্রার্থনা করেন কল্যাণ বড়ুয়া।
দানোৎসবে দিনব্যাপী কর্মসূচীর মধ্যে ছিল সোমবার ভোরে বিশ্বশান্তি কামনায় পবিত্র ত্রিপিটক থেকে সুত্রপাঠ, শোভাযাত্রা সহকারে
বুদ্ধপুজা, সকালে ভিক্ষুসংঘের প্রাতঃরাশ, জাতীয় ও ধর্মীয় পতাকা উত্তোলন, মহাসংঘদানসহ অষ্টপরিস্কারদান, ধর্মসভা, অতিথি ভোজন, বিকালে কঠিনচীবর ও কল্পতরু সহকারে গ্রাম প্রদক্ষিন, দানোত্তম কঠিন চীবর দানসভা, চীবর পরিক্রমা, কঠিন চীবর ও কল্পতরু উৎসর্গ ও রামু কেন্দ্রীয় সীমা মহাবিহারের অধ্যক্ষ, পুজনীয় উপ-সংঘরাজ, একুশে পদকে ভুষিত, প্রয়াত পন্ডিত সত্যপ্রিয় মহাথের ও উত্তর মিঠাছড়ি প্রজ্ঞামিত্র বন বিহারের অধ্যক্ষ প্রয়াত প্রজ্ঞামিত্র মহাথের মহোদয়ের নির্বাণসুখ কামনাসহ বিশ্বশান্তি কামনায় সমবেত প্রার্থনা। অনুষ্ঠানে শতাধিক বৌদ্ধ ভিক্ষু -শ্রামন অংশ গ্রহন করবেন।
কঠিন চীবর দানোৎসব সুষ্টু, সুন্দর, শান্তিপুর্ন ও উৎসব মুখর পরিবেশে হাজারো পুণ্যার্থীর অংশ গ্রহনে সম্পন্ন হওয়ায় আয়োজকদের পক্ষ থেকে প্রজ্ঞামিত্র বন বিহার পরিচালনা কমিটির সভাপতি, বিহারাধ্যক্ষ ভদন্ত সারমিত্র মহাথের ও সাধারণ সম্পাদক টিটু বড়ুয়া সকলের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।