সেলিম উদ্দিন, ঈদগাঁহ

কক্সবাজার সদর উপজেলার পোকখালীতে ফুলছড়ি নদীর কবলে বিলুপ্ত প্রায় উত্তর গোমাতলী রাজঘাট পাড়া সরজমিন পরিদর্শন করেছেন সদর উপজেলা চেয়ারম্যান কায়সারুল হক জুয়েল।
গতকাল বুধবার বিকেলে
সদর উপজেলার পোকখালী ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের রাজঘাট পাড়া এলাকা পরিদর্শন শেষে তিনি নদীর ভাঙ্গন প্রতিরোধে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন। গোমাতলীর ২০ হাজার জনগোষ্টির যাতায়াতের সুবিধার্থে ক্ষতিগ্রস্থ রাস্তা ও স্টীল ব্রীজ সংস্কারের পূর্বে পরিদর্শন করে সদর উপজেলা চেয়ারম্যান কায়সারুল হক জুয়েল বলেন, আমি আপনাদের সাথে ছিলাম, আছি এবং ভবিষ্যতে আপনাদের পাশে থাকবো। কথা দিলাম অত্র এলাকার ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তা ঘাট ও ব্রীজের সংস্কার দ্রুত করা হবে।
গোমাতলীর ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তা ও ব্রীজের উন্নয়ন আমার আমলে সম্পূর্ন করবো ইনশাআল্লাহ।
তিনি বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা জন্য দোয়া ও দীর্ঘায়ু কামনা করে আগামীতে এলাকার মানুষের সেবায় নিয়োজিত থাকতে সকলের সহযোগীতা ও দোয়া কামনা করেছেন।
পরিদর্শনকালে তার সাথে ছিলেন সদর সেচ্চাসেবকলীগ সভাপতি এড. একরামুল হুদা, পোকখালী ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি মোজহের আহমদ,যুগ্ন সাধারন সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, প্রবীন আ’লীগ নেতা হাবিবুর রহমান, নুরুল হুদা, নুরুল আজিম, গোমাতলী সমবায় কৃষিও মোহাজের উপনিবেশ সমিতির সম্পাদক মুসলেম উদ্দীন, সাংবাদিক ছৈয়দ উল্লাহ আজাদ, প্রবাসী আ’লীগ নেতা মোক্তার আহমদ মিন্টু, উপজেলা চেয়ারম্যানের সহকারী কুতুব উদ্দীন, জয়নাল আবেদীন প্রমুখ।
উল্লেখ্য, পোকখালী ৭ নং ওয়ার্ড তথা রাজঘাট পাড়া দীর্ঘদিন ধরে ফুলছড়ি নদীর ভাঙ্গনের কবলে রয়েছে। ভাঙ্গন যত বাড়ছে ততই এখানকার বাসিন্দাদের মধ্যে বিরাজ করছে চরম আতংক। রাজঘাট জেটি নির্মাণের পরে ফাটল এবং বিশাল অংশ দেবে গেছে। বর্তমানে রাজঘাট পাড়ার ২/৩টি অংশে ফাটল দেখা দিয়েছে। একই সাথে চরম হুমকিতে রয়েছে রাজঘাট জেটি মসজিদ, কবরস্থান ও বেড়িবাঁধের বাইরে প্রায় অর্ধশতাধিক পরিবার।
অসময়েও ভাঙ্গন দেখা দেয়ায় নদী ভাঙ্গন আতংকে নির্ঘুম রাত কাটছে এখানকার বাসিন্দারা। বর্ষা মৌসুমে মহল্লার বেড়িবাঁধ ভাঙ্গতে ভাঙ্গতে সরু অবস্থায় পড়ে রয়েছে দীর্ঘদিন ধরে। ইতিমধ্যে মহল্লাবাসি বিভিন্ন ভাবে বেড়িবাঁধটি রক্ষার চেষ্টা চালিয়েও ব্যর্থ হয়েছেন। ভাঙ্গনের কারণে এ বাঁধ দিয়ে লোকজন চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে।
একইদিন বিকেলে উপজেলা চেয়ারম্যান কায়সারুল হক জুয়েল, ইসলামপুরে খাল দখল করে লবন মিল নির্মান এলাকা পরির্দশন করে ঈদগাঁহ আর্দশ উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষকদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় মিলিত হন।