মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

ভোটারতালিকা হালনাগাদ করণে কোন রোহিঙ্গা নতুন হউক, আর পুরাতন হউক, তারা যাতে ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত নাহয়, সেজন্য সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। ভোটার তালিকা হালনাগাদকরণের যাচাই-বাচাই এ কোন শৈথিল্য প্রদর্শন করা যাবেনা। কোন অবস্থাতেই রোহিঙ্গাদের ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা যাবেনা। সরকার এ বিষয়ে ‘জিরো টলারেন্স’ নীতি অবলম্বন করছে। তারপরও কোন কারণে রোহিঙ্গারা হালনাগাদকরণে ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়ে গেলে, তাদের ডকুমেন্টস সৃজনে, ভোটার হতে, বিভিন্ন পর্যায়ে যারা সংশ্লিষ্ট থাকবে তাদেরকে কঠোর আইনের আওতায় আনা হবে। এব্যাপারে বিন্দুমাত্র কাউকে ছাড় দেওয়া হবেনা।
শনিবার ১২ অক্টোবর কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের শহীদ এটিএম জাফর আলম সিএসপি সম্মেলন কক্ষে কক্সবাজার জেলার ভোটার তালিকা হালনাগাদকরণ কার্যক্রমের বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোঃ মোখলেসুর রহমান এ কথা বলেন।

কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তৃতা করেন-নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের যুগ্মসচিব (নির্বাচন ব্যবস্থাপনা-২) ফরহাদ আহাম্মদ খান ও চট্টগ্রামের আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা হাসানুজ্জামান। মতবিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা এস.এম শাহাদাত হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব, উপসচিব) মোহাম্মদ আশরাফুল আফসার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান মোল্লা, ভোটার তালিকা যাচাই বিষয়ক বিশেষ কমিটির সভাপতি জেলার বিভিন্ন উপজেলার ইউএনও বৃন্দ, বিশেষ কমিটির সচিব উপজেলা নির্বাচন অফিসারবৃন্দ সহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। মতবিনিময় সভায় অতিরিক্ত সচিব মোঃ মোখলেসুর রহমান ভোটার তালিকা হালনাগাদকরণে উপস্থিত কর্মকর্তাদের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দিক নির্দেশনা দেন।