এম.মনছুর আলম, চকরিয়া
চকরিয়া উপজেলায় বন্যাদুর্গত জনপদে পানিবন্দি হাজারো নারী-পুরুষের মাঝে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষথেকে প্রথম দিনের মতো ১৩ইউনিয়ন পরিষদে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আলহাজ ফজলুল করিম সাঈদী ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান এ ত্রাণ বিতরণ করেন। শনিবার সকালে তাঁরা উপজেলার বন্যাদুর্গত জনপদ হারবাং, কৈয়ারবিল, বিএমচর, বরইতলী, ফাঁসিয়াখালী, পূর্ব বড় ভেওলা, কোনাখালীসহ বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিদর্শন করে বানবাসি মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেন। এর আগে তাঁরা দুর্গত এলাকার সড়ক উপ-সড়ক ও ফসলি জমি এবং মানুষের ঘর-বাড়ির ক্ষয়ক্ষতি এলাকা সমূহ পরির্দশন করেন।
এসময় কাকারা ইউপি চেয়ারম্যান শওকত ওসমান, বিএমচর ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি শওকত হোসেন, আওয়ামীলীগ নেতা পরিমল বড়ুয়া, বিভিন্ন ইউপি সদস্য, স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতাকর্মী ও এলাকার সর্বস্থরের জনসাধারণ উপস্থিত ছিলেন।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান বলেন, প্রথম দিনের মতো ১৩টি ইউনিয়নে সরকারিভাবে প্রাপ্ত ৪০টন চাউল ত্রাণ হিসেবে বিতরণ অব্যাহত রয়েছে। রবিবার ২হাজার পরিবারের মাঝে শুকনো খাবার বিতরণ করা হবে। আজকালের মধ্যে সরকারিভাবে আরো বরাদ্দ পাওয়ার সম্ভবনা রয়েছে। আশাকরি উপজেলায় বন্যাদুর্গত মানুষের মাঝে ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে পর্যাপ্ত পরিমাণ ত্রাণ তুলে দেওয়া হবে। তিনি বলেন, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ সকল সড়ক এবং বসতঘর মেরামতে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষথেকে বরাদ্দপত্র সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরে পাঠানো হবে।