মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজারের স্বনামধন্য জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন রোববার থেকে অনুষ্ঠিতব্য ডিসি সম্মেলনে এজেন্ডা হিসাবে রাখার জন্য বেশ কিছু প্রস্তাব সংশ্লিষ্ঠ মন্ত্রনালয়ে পাঠিয়েছিলেন। সে প্রস্তাব গুলো মন্ত্রীপরিষদ বিভাগে বেশ গুরুত্ব পেয়েছে। একইসাথে সারা দেশের অন্যান্য ৬৩ জন জেলা প্রশাসকও সহস্রাধিক প্রস্তাব মন্ত্রীপরিষদ বিভাগে পাঠিয়েছিলেন। সেখান থেকে ডিসি সমেলনে উঠানোর জন্য মন্ত্রীপরিষদ বিভাগের প্রস্তুত করা কার্যপত্রে ৩৩৩ টি প্রস্তাব বাছাই করে রাখা হয়েছে। কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেনের প্রেরিত অধিকাংশ প্রস্তাব এ কার্যপত্রভূক্ত হয়েছে। বিষয়টি বিশ্বস্ত একটি সুত্র সিবিএন-কে নিশ্চিত করেছেন। এরমধ্যে এক নম্বর প্রস্তাব হলো-প্রত্যেক জেলায় এসপি’র নিয়ন্ত্রনের বাইরে জেলা প্রশাসকের অধীনে ডিসি’দের নিরপত্তায় এক প্লাটুন আলাদা সশস্ত্র পুলিশ ফোর্স রাখার বিধান, দু’নম্বর প্রস্তাব হলো-দেশব্যাপী জেলা বাজেট প্রণয়নে ডিসিদের ক্ষমতা দেওয়ার কথা উল্লেখ করে ডিসি মোঃ কামাল হোসেন যুক্তি দেখিয়েছেন, কেন্দ্রীয়ভাবে বাজেট প্রণয়ন করে মন্ত্রণালয় ও বিভাগের মাধ্যমে বাস্তবায়ন করায় ডিসিরা এ বিষয়ে ঠিকভাবে অবহিত থাকেন না। প্রস্তাবে তিনি বলেছেন, এলজিইডি, গণপূর্ত সহ সব দপ্তরে গৃহীত উন্নয়ন কর্মকাণ্ড, জেলার চাহিদা অনুযায়ী কম বরাদ্দ ও ব্যয় সম্পর্কে ডিসিরা অবগত হন না। ফলে জনসাধারণের কাছে সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের সার্বিক চিত্র স্পষ্টভাবে তুলে ধরা যায় না। কার্যপত্রে অন্তর্ভুক্ত হওয়া কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেনের তিন নম্বর প্রস্তাব হলো-জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বা সচিবকে ম্যাজিস্ট্রেসি ক্ষমতা দেওয়া। যাতে দেশের জেলা পরিষদ সমুহের কর্মকান্ড আরো গতিশীল হয় ও কার্যপরিধির আওতা বাড়ে। দেশের জেলা পরিষদ নিয়ে ডিসি সম্মেলনের কার্যসূচীতে রাখা এটি একমাত্র প্রস্তাব বলে সুত্রটি সিবিএন-কে জানিয়েছেন।
এছাড়াও অন্যান্য জেলা প্রশাসকদের প্রস্তাবগুলোর মধ্যে বিসিএস (প্রশাসন) ক্যাডারদের জন্য দেশের বিভিন্ন বাহিনীর মতো করে নতুন বিশেষায়িত ব্যাংক ও জনপ্রশাসন বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার প্রস্তাব রয়েছে। রবিবার ১৪ জুলাই থেকে শুরু হতে যাওয়া ডিসি সম্মেলন উপলক্ষে সব জেলার ডিসিরা এখন ঢাকায় রয়েছেন। কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আশরাফুল আফসার (উপসচিব) এখন কক্সবাজারের ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন।প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে ডিসি সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
শনিবার ১৩ জুলাই বিকেল সাড়ে ৪ টায় মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে সম্মেলনের প্রাক প্রস্তুতির জন্য জেলা প্রশাসকদের অভ্যন্তরীণ ব্রিফিং দেওয়া হবে। এছাড়া বার্ষিক উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাবনা (ডিপিপি) প্রণয়নের ক্ষমতা ডিসিদের দেওয়ার জন্য দাবি জানিয়েছেন চাঁদপুরের ডিসি। জেলার ভৌগোলিক সীমার মধ্যে গৃহীত এক কোটি টাকার উর্ধ্বের প্রকল্প হলে ডিসিদের অনুমতি নেওয়ার প্রস্তাব পাঠিয়েছেন গোপালগঞ্জের ডিসি। প্রতিবছর অন্তত এক কোটি টাকা স্বাধীনভাবে খরচ করতে থোক বরাদ্দ চেয়েছেন ডিসিরা। বরাবরের মতো এবারও ফৌজদারি অপরাধ আমলে নেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় বিচারিক ক্ষমতা চেয়েছেন ডিসিরা। চট্টগ্রামের ডিসি ইউনিয়ন পরিষদের মেয়াদ শেষে নির্বাচন অনুষ্ঠানে আইনি জটিলতা থাকলে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নে প্রশাসক নিয়োগের প্রস্তাব করেছেন। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণসংক্রান্ত জেলা কমিটি পুনর্বিন্যাস করে সংসদ সদস্যকে উপদেষ্টা ও ডিসিদের সভাপতি করার প্রস্তাব দিয়েছেন ঝালকাঠির ডিসি। উপজেলা শিক্ষা কমিটি পুনর্গঠন করে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানকে উপদেষ্টা ও ইউএনওকে সভাপতি করার প্রস্তাবও করেছেন ঝালকাঠির ডিসি। পাঁচ দিনব্যাপী ডিসি সম্মেলন শেষ হবে আগামী বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই।