সিবিএন রিপোর্টঃ

কোরবানীর ঈদে এবার কক্সবাজারে দুই রাজপুত্রের চমক নিয়ে আসছে চৌধুরী এগ্রো।
ইউলিয়াম ও হ্যারি নামের দুইটি বিশাল আকৃতির গরু নিয়ে এবার চমক দেখাবে জেলার খ্যতনামা এই ফার্মটি। ব্রিটিশ দুই রাজপুত্রের নামের এই গরু দুটি দেখতে প্রিন্সের মতোই। গরু দুটির স্বভাব, হাটা-চলা, গায়ের রং আর খাদ্যাভাস সব রাজ পরিবারের মতোই। প্রতিবারের মতো এবারো কক্সবাজারের সবচেয়ে বড় গরু দুটি বিক্রি করবে উখিয়ার “চৌধুরী এগ্রো”। বিশ্ব বিখ্যাত উলবারি জাতের গরু দুটির ওজন ৩০ মন।

কোবানীকে সামনে রেখে কক্সবাজারে সবচেয়ে বড় গরু মোটাতাজা করে উখিয়া উপজেলার চৌধুরী এগ্রো। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। এবারও কুরবানীতে জেলার সবচেয়ে বড় ষাড়, বলদ ও মহিষ হাটে তুলবে চৌধুরী এগ্রো। বিভিন্ন প্রজাতির প্রায় ৪০টি গরু থাকলেও “উইলিয়াম ও হ্যারি” নামের রয়েছে দুটি সাদা ষাড়। এদের খাদ্য তালিকায় রয়েছে, প্রতিদিন ৩ বেলা দানাদার খাদ্য, ১ কেজি করে সুজি, ৫০০ গ্রাম সাগু ও ১০০ গ্রাম কিসমিস।

চৌধুরী এগ্রো ফার্মের সত্ত্বাধিকারী ইমরুল কায়েস চৌধুরী
জানিয়েছেন, বিশ্ব বিখ্যাত উলবারি জাতের সাড় দুটি তিনি এক বছর আগে রাজশাহীর সিটি হাট থেকে সংগ্রহ করেছিলেন। কক্সবাজারে এর আগে কোন সময় উলবারি জাতের গরু কেউ আনেনি। এই গরু দুটিতে ৩০ মন মাংশ হবে বলে তিনি জানান। এবার কোরাবানীতে এই দুটি উলবারি ষাড়ের দাম হাকানো হবে ১৬ লাখ টাকা।
এছাড়াও এই ফার্মের মিয়ানমারের বলদ, নেপালী ভূট্টি, পাকিস্তানী শাহি আল ও দেশি ষাড় রয়েছে। পাশাপাশি বিশাল আকৃতির মহিষও এবার কোরবানীর হাটে তুলবে চৌধুরী এগ্রো।