এ কে এম ইকবাল ফারুক, চকরিয়া :

ভারী বর্ষনের ফলে আসন্ন বন্যা পরিস্থিতি মোকাবেলায় চকরিয়া উপজেলার উপকূলীয় বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিদর্র্শন করেছেন চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নুরুদ্দীন মোহাম্মদ শিবলী নোমান। শনিবার (৬ জুলাই) বিকালে তিনি বদরখালী, পশ্চিম বড় ভেওলা, কোনাখালী ও সাহারবিল ইউনিয়নে পানি উন্নয়ন বোর্ডের আওতাধীন বেঁড়িবাধ ও স্লুইচ গেইটে পরিদর্শন করেন। এসময় কোনাখালী ইউনিয়নে পানি উন্নয়ন বোর্ডের আওতাধীন স্লুইচ গেইটে নিয়ম বহিভূতভাবে জাল বসিয়ে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি করে মাছ ধরার কারণে দুইটি জাল জব্দ করে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের জিম্মায় দেওয়া হয়।

এসময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ের আইসিটি টেকনিশিয়ান এরশাদুল হক, পশ্চিম বড় ভেওলা ইউনিয়নের সচিব ফয়সাল আহামদসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধি ও গন্যমান্য ব্যক্তিগন উপস্থিত ছিলেন।

চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নুরুদ্দীন মোহাম্মদ শিবলী নোমান বলেন, চকরিয়ায় ভারী বর্ষনের ফলে আসন্ন বন্যা পরিস্থিতি মোকাবেলায় উপজেলার উপকূলীয় বিভিন্ন ইউনিয়নের বেড়িবাঁধ ও স্লুইচ গেইট সমুহ পরিদর্র্শন করা হয়। এসময় কোনাখালী ইউনিয়নে পানি উন্নয়ন বোর্ডের স্লুইচ গেইটে নিয়ম বহিভূতভাবে জাল বসিয়ে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি করে মাছ ধরার কারণে দুইটি জাল জব্দ করে তা স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের জিম্মায় দেওয়া হয়।