মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

অনেক কাঠ খড় পুড়িয়ে কুতুবদিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে অবশেষে দায়িত্ব নিচ্ছেন-বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত এডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী। রোববার ৭ জুলাই সকাল সাড়ে ১০ টায় কুতুবদিয়া উপজেলা পরিষদ ভবনে দায়িত্বগ্রহণ অনুষ্ঠান হবে। বিষয়টি কুতুবদিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) দীপক কুমার রায় সিবিএন-কে নিশ্চিত করেছেন। নতুন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী’কে বরণ করে নেয়ার জন্য কুতুবদিয়া উপজেলা প্রশাসন সম্পূর্ণ প্রস্তুত রয়েছেন। এর আগে গত ২ জুলাই এডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে শপথ গ্রহন করেন। চট্টগ্রামের বিভাগীয় কমিশনার মোহাম্মদ আবদুল মান্নান আনুষ্ঠানিকভাবে তাঁকে শপথ বাক্য পাঠ করান। গত ২৭ জুলাই স্থানীয় সরকার বিভাগের উপজেলা-১ শাখার উপ সচিব নুমেরী জামান স্বাক্ষরিত ৪৯৮ নম্বর স্মারকে চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনারের কাছে প্রেরিত এক পত্রে বিজ্ঞ আদালতের কোন নিষেধাজ্ঞা না থাকলে কুতুবদিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে এডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী’কে শপথ করানোর অনুরোধ জানানো হয়। এডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হলেও একই পদে মনোনয়নপত্র দাখিল করে বাতিল হওয়া আজিজুল হক সাগর নামক আরেকজন প্রার্থীর সুপ্রিম কোর্টের আপীল বিভাগ পর্যন্ত করা মামলার জটিলটায় তিনি শপথ ও পরিষদের দায়িত্ব নিতে পারেননি। কুতুবদিয়া উপজেলা পরিষদের পুরুষ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে গত ১৩ জুন অনুষ্ঠিত নির্বাচনে নির্বাচিত হুমায়ুন কবির হায়দার ও হাসিনা আক্তার বিউটি’র নামে গেজেট প্রকাশ না হওয়ায় তাঁরা দু’জন এখনো শপথ নিতে পারেননি। আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী এডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী কুতুবদিয়ার বড়ঘোপ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের পদ থেকে পদত্যাগ করে কুতুবদিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে অংশ নেন। তিনি কুতুবদিয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ও কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতির দায়িত্বে রয়েছেন।