যুগান্তর : এবারের বিশ্বকাপের শুরু থেকেই টাইগার বন্দনায় ভাসছেন ক্রিকেটবোদ্ধারা।

নিজেদের প্রথম ম্যাচেই শক্তিশালী দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন টাইগাররা।

তাদের এতটুকুনও তাচ্ছিল্য করতে দেখা যায়নি আর সব দলকে। প্রতি ম্যাচের আগেই সাকিব, মুশফিকদের কীভাবে আটকাতে হবে সে ছক করে মাঠে নেমেছে বিপক্ষ শক্তি।

যে কারণে বাংলাদেশের প্রতি ম্যাচের আগেই সে ম্যাচ নিয়ে বিপক্ষ দলের সাবেক ক্রিকেটারদের কেউ না কেউ বিভিন্ন টুইটবার্তায় মেতেছিলেন।

তারা প্রশংসা করেছিলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের। মাশরাফি বিন মুর্তজার অধিনায়কত্বেরও ভূয়সী প্রশংসা করেছেন কেউ কেউ।

কিন্তু আর সব ক্রিকেটবোদ্ধার সঙ্গে না গিয়ে বিপরীত ও নেতিবাচক মন্তব্য করেছেন সাবেক অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার ব্রাড হগ। গতকালের অস্ট্রেলিয়া-বাংলাদেশ ম্যাচের আগে এক টুইটবার্তায় বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফিকে নিয়ে কটাক্ষ করেছেন তিনি।

মাশরাফির ফিটনেস নিয়েও তীর্যক মন্তব্য করেছেন। তার ভাষ্য, বাংলাদেশ দলকে নাকি পেছনে টেনে ধরছেন মাশরাফি।

নিজের ভেরিফায়েড টুইটারে এক ভিডিওবার্তায় পরামর্শ দিতে গিয়ে ব্র্যাড হগ মাশরাফিকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘বিশ্বকাপে দারুণ কিছু করে ক্যারিয়ারে ইতিটানার লক্ষ্য সবারই থাকে। কিন্তু আমার মনে হচ্ছে আপনার শরীর আর নিতে পারছে না। আপনি শুধু বাংলাদেশ দলকে পেছনে টেনে ধরছেন, যেটি খেলোয়াড়সুলভ আচরণ নয়।’

এটা বলেই ক্ষান্ত হননি এই সাবেক অসি স্পিনার। মাশরাফিকে একাদশ থেকে সরে গিয়ে দলে তরুণদের সুযোগ করে দিতে অনুরোধ জানান তিনি।

সারা বিশ্ব যখন মাশরাফির অধিনায়কত্বের প্রশংসায় পঞ্চমুখ তখন এমন মন্তব্য এলো অস্ট্রেলিয় লেগ স্পিনার ব্র্যাড হগ থেকে।

এর আগে ভারতীয় ক্রিকেটার অজিত আগরকার মাশরাফির সমালোচনায় মেতেছিলেন। বাংলাদেশের একাদশে মাশরাফির সুযোগ পাওয়াই উচিত নয় বলেও মন্তব্য করেছিলেন তিনি।

অবশ্য আগরকারের এমন বেফাঁস মন্তব্যের কড়া জবাব দিতে কাপণ্য করেননি বাংলাদেশি ওপেনার তামিম ইকবাল। বিদেশিদের মন্তব্য কোনো গুরুত্ববহন করে না জানিয়ে তামিম বলেছিলেন, ‘বিদেশি অনেকেই কত কথা বলছেন শুনেছি। আমার প্রশ্ন, নিজেদের জীবনে তারা কী করেছেন? দেশের মানুষদের বোঝা উচিত মাশরাফি দেশের জন্য কতটা করেছেন।’

শুধু তাই নয় মাশরাফির ফিটনেস প্রশ্নে অজিত আগরকারকে এক হাত নিয়েছিলেন তামিম।

তামিম বলেছেন, ‘ মাশরাফি ভাই যদি আনফিট হন, তাহলে তো গত ১০ বছর ধরেই তিনি এমনই। তখন আমরা আবেগ থেকে দেখেছি। এখন একটু কিছু হলেই অনেক বড় করে দেখছি। ইনজুরি নিয়েই তার পুরোটা ক্যারিয়ার।’

তিনি আরও বলেন, ‘ আসলে আমরা এমন একজনকে নিয়ে কথা বলছি, যার হাত ধরে আমাদের ক্রিকেট আজ এখানে এসেছে। তাকে নিয়ে এসব সমালোচনা খুব অন্যায্য। আমি মনে করি আরও বেশি শ্রদ্ধা প্রাপ্য মাশরাফির।’

মাশরাফির বিষয়ে তামিমের এমন জবাবের পরও একই জল ঘোলায় মেতেছেন ব্রাড হগ। ক্রিকেট বিশ্লেষকগণের ধারণা, তামিমের সেসব বক্তব্য হয়তো হগ শোনেননি।

ব্রাড হগের সেই ভিডিও টুইট: