ঈদগাঁও সংবাদদাতাঃ
নির্বাচনী প্রচারণার শেষ দিনে এসে সুষ্ঠু ভোট গ্রহণ ও নিজের জীবনের নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন কক্সবাজার সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আনারস প্রতীকের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী সেলিম আকবর।
শুক্রবার রাত ১০ টায় ঈদগাঁওর প্রধান নির্বাচনী কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন তিনি।
সেলিম আকবর বলেন, আমরা জনগণের ভোটাধিকার নিশ্চিত করার জন্য নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছি। সুষ্ঠু পরিবেশ দেখে মানুষ নির্বাচনমুখী হয়েছে। প্রার্থীরাও নির্বাচনকে অংশগ্রহণমূলক করতে উৎসবমুখর পরিবেশে প্রচারণা চালিয়েছে। কিন্তু ভোটের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে ততোই প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ও তার সমর্থকরা সাধারণ ভোটারদের ভয়ভীতি প্রদর্শন করছে।
প্রতিনিয়ত আমাকে হুমকি ধমকি দেয়া হচ্ছে। আমার নির্বাচনী কর্মীদেরকে মারধর করছে। প্রচারণার শেষ দিনেও অনেক জায়গায় এমন ঘটনা ঘটেছে। বিভিন্ন এলাকায় আমার নির্বাচনী পোস্টার-ব্যানার ছিঁড়ে ফেলেছে নৌকার সমর্থকরা। ইতিমধ্যে আমার এজেন্টদের হুমকি দেয়া শুরু করেছে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থীর লোকজন। ভোটের সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় বজায় রাখার জন্য প্রশাসনের কাছে আমি বিনীত অনুরোধ করছি।
চেয়ারম্যান প্রার্থী সেলিম আকবর বলেন, মানুষের ভোটাধিকার ফিরিয়ে দেয়ার জন্য আমি আন্দোলন শুরু করেছি। মাঠে আনারস প্রতীকের গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। মানুষের ভোটেই আমি নির্বাচিত হবো। সেটি জেনে প্রতিদ্বন্দ্বি নৌকা প্রতীকের লোকজন আমাদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার শুরু করেছে। ভারুয়াখালীসহ বেশ কিছু জায়গায় ‘আমি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছি’ মর্মে মিথ্যা মাইকিং করেছে। নানাপ্রকার অপপ্রচারও অব্যাহত রেখেছে। এরপরও নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ থাকলে, জনগণ ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারলে পাল্টে যাবে ভোটের চিত্র। সবকিছু মাড়িয়ে আমি নির্বাচিত হবো, ইনশাআল্লাহ। প্রশাসনের প্রতি আমার শতভাগ আস্থা ও বিশ্বাস রয়েছে।
তিনি আরো বলেন, নৌকা প্রতীকের পক্ষে কক্সবাজার পৌরসভার প্রায় ভোট কেন্দ্রসহ বিভিন্ন কেন্দ্র দখলের পরিকল্পনার কথা বিভিন্ন সূত্র থেকে আমরা জেনেছি। সে মতে তারা এগোচ্ছে।
চেয়ারম্যান প্রার্থী সেলিম আকবর মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনি আমাদের প্রধানমন্ত্রী, ১৬ কোটি মানুষের অভিভাবক। আমরা কেউই আপনার বাইরের নই। আমরা সবাই আপনারই লোক। কক্সবাজার এখন পুরো দেশের জন্য মডেল। ছোট্ট একটি নির্বাচনকে ঘিরে এখানে বিশৃংখল কিছু ঘটুক-তা আমরা প্রত্যাশা করি না। গুটি কয়েক লোক নির্বাচনের পরিবেশ নষ্ট করছে। তাদের কারণে সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হচ্ছে।
তিনি বলেন, আমি অতি সাধারণ একজন প্রার্থী। সাধারণ মানুষের ছেলে। আমাকে ভয় পাওয়ার কারণ কি? জনগণের ভোটে যিনি নির্বাচিত হবেন, তাকে আমি মেনে নেবো।
সেলিম আকবর প্রত্যাশা করেন, জেলার অন্য সব উপজেলায় সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন উপহার দিতে সক্ষম হয়েছে প্রশাসন। মানুষ পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে পেরেছে। কক্সবাজার সদরেও সুষ্ঠু ভোট আশা করছি। পাশাপাশি আমিসহ ভোটারদের নিরাপত্তা কামনা করছি। অন্যথায় পরবর্তী পরিস্থিতির জন্য প্রশাসনকেই দায়ভার বহন করতে হবে বলে জানান চেয়ারম্যান প্রার্থী সেলিম আকবর।
সংবাদ সম্মেলনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী সেলিম আকবর’র নির্বাচন উপদেষ্টা, পরিচালক, এজেন্টসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন। তিনি সবার দোয়া ও আনারস প্রতীকে ভোট কামনা করেছেন।