ছবি : আটক আরমানুল হক প্রিন্স

পেকুয়া প্রতিনিধি :

কক্সবাজারের পেকুয়ায় শহীদ জিয়াউর রহমান কলেজের আরমানুল হক প্রিন্স নামের এক ছাত্রের ছুরিকাঘাতে ছাত্রলীগ নেতাসহ তিনজন গুরুতর আহত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৮মার্চ) দুপুর ১টার দিকে পেকুয়া শহীদ জিয়াউর রহমান কলেজ ক্যান্টিনে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন, পেকুয়া সদর ইউনিয়নের শেখের কিল্লা ঘোনা এলাকার মাষ্টার নুরুল ইসলামের ছেলে সাইফুল ইসলাম, মগনামা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ইউনুচ চৌধুরীর ছেলে লিয়ন ও বাঁশখালী নাপোড়া এলাকার বশির আহমদের ছেলে ফোরকান উদ্দিন। আহত সাইফুল ইসলাম পেকুয়া উপজেলা ছাত্রলীগের উপ ত্রাণ দূর্যোগ বিষয়ক সম্পাদক। আহতদের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

এদিকে ঘটনাস্থলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে অাহত হয়েছে পেকুয়া থানার দুই পুলিশ সদস্য।

প্রত্যক্ষদর্শী জানান, বৃহস্পতিবার কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান চলছিল। দুইজন সঙ্গী নিয়ে অনুষ্ঠানে যোগ দিতে কলেজে যায় ছাত্রলীগ নেতা সাইফুল ইসলাম। এসময় কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র আরমানুল হক প্রিন্সের নেতৃত্বে বেশ কয়েকজন যুবক পূর্ব শত্রুতার জের ধরে তাদের গতিরোধ করে হামলা চালায়। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে হামলাকারী আরমানুল হক প্রিন্সকে অাটক করে।

এব্যাপারে শহীদ জিয়াউর রহমান কলেজের অধ্যক্ষ ওবাইদুর রহমান বলেন, ঘটনাটি কলেজ ক্যান্টিনে সংঘঠিত হয়েছে।

পেকুয়া থানার ওসি জাকির হোসেন ভূঁইয়া বলেন, ঘটনাস্থলে দ্রুত পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। ঘটনার মূল অভিযুক্ত অারমানুল হক প্রিন্সকে অাটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।