আলমগীর মানিক,রাঙামাটি :

রাঙামাটির বাঘাইছড়ি ও বিলাইছড়িতে আঞ্চলিকদলীয় সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের হাতে নিহত ৮ জনের খুনিদের বিচারের দাবিতে রাঙামাটি শহরে বিক্ষোভ মিছিল-সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। পার্বত্য অধিকার ফোরাম ও বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম ছাত্র পরিষদ উদ্যোগে বুধবার রাঙামাটি পৌর চত্বর থেকে শুরু হয়ে বিক্ষোভ মিছিলটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক হয়ে জেলা কার্যালয় সম্মুখ সড়ক ঘুরে বনরূপা এসে শেষ হয়। পরে সেখানে কাঠ ব্যবসায়ি সমিতির হলরুমে সমাবেশে মিলিত হয়।

সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, পার্বত্য অধিকার ফোরামে কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি জাহিদুর রহমার জাহিদ। এসময় অন্যান্যের মধ্যে কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক মোঃ পারভেজ, দপ্তর সম্পাদক রবিউল, কেন্দ্রীয় সমন্বয়ক হাবিবুর রহমান হাবিব, রাঙামাটি সরকারী কলেজ শাখার সভাপতি মোমিনুল ইসলাম প্রমুখ নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, পাহাড়ের নিয়ন্ত্রণহীন সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের বেপরোয়া অপতৎরতা প্রতিরোধ করতে পার্বত্য চট্টগ্রামের প্রশাসন সম্পূর্ন ব্যর্থতার পরিচয় দিচ্ছে। তথাকথিত অধিকার আদায়ের নামে সশস্ত্র তৎপরতায় লিপ্ত উপজাতীয় আঞ্চলিকদলীয় সন্ত্রাসীদের ব্যাপক তান্ডবে গত ১৮ ও ১৯শে মার্চ রাঙামাটির বাঘাইছড়ি ও বিলাইছড়িতে আটজন নিহত হওয়াসহ অন্তত ২৭জন মানুষ গুলিবিদ্ধ হয়েছে। বক্তারা এই ঘটনার নিন্দা জানিয়ে প্রশাসনের সমালোচনা করে বলেন প্রকাশ্যে দিবালোকে প্রধান সড়কে সশস্ত্র এই হামলার ঘটনায় এখনো পর্যন্ত হামলাকারিদের ধরতে পারেনি পাহাড়ের প্রশাসন।

একটা স্বাধীন সার্বভৌম দেশে প্রকাশ্যে সশস্ত্র হামলার মতো ঘটনাই প্রমান করে পাহাড়ের মানুষ কতোটা নিরাপত্তাহীনতায় বসবাস করছে। এমতাবস্থায় পার্বত্য চট্টগ্রামের সন্ত্রাসীদের নিয়ন্ত্রণে দৃশ্যমান চিরুনী অভিযান চালানোর পাশাপাশি পাহাড়ের মানুষের জানমাল রক্ষায় অত্রাঞ্চলে সেনাবাহিনীর ক্যাম্প বৃদ্ধির দাবিও জানিয়েছেন নেতৃবৃন্দ।