আহমদ গিয়াস:
দেশে ইলিশ মাছের প্রাচূর্য আরো বাড়ানোর জন্য ডিমওয়ালা ইলিশের পাশাপাশি অপরিপক্ক ইলিশ বা জাটকা ধরা বন্ধ করার উপর জোর দিচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। জাটকা নিধন বন্ধ হলে এবং পরিবেশগত অন্যান্য বাঁধা অপসারণ করা হলে দেশে ইলিশের সুদিন ফিরবে বলেও আশা করছেন তারা। জাটকা সংরক্ষণ সপ্তাহ উপলক্ষে কক্সবাজারস্থ সামুদ্রিক মৎস্য গবেষণা ও প্রযুক্তি কেন্দ্র আয়োজিত তিনদিনব্যাপী এক প্রশিক্ষণ কর্মশালায় এ মতামত প্রকাশ করেন বিজ্ঞানীরা।

‘ইলিশ সম্পদ সংরক্ষণ ও ব্যবস্থাপনা: জাটকা সংরক্ষণ কৌশল’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ কর্মশালায় জেলে, মৎস্য ব্যবসায়ী, শিক্ষক ও সাংবাদিকসহ ৩০জন সমাজকর্মী অংশ নেন। কর্মশালায় জাটকা নিধন বন্ধ করে কীভাবে দেশে ইলিশ সম্পদ বাড়ানো যায় তার উপর তিনদিনব্যাপী কর্মশালায় বৈজ্ঞানিক গবেষণাচিত্র তুলে ধরা হয়।

২২ মার্চ (শুক্রবার) কর্মশালার সমাপনী দিনে প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে সনদ বিতরণ করেন কক্সবাজারস্থ সামুদ্রিক মৎস্য গবেষণা ও প্রযুক্তি কেন্দ্রের মূখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো. জুলফিকার আলী। তিনি বলেন, আজকের জাটকা আগামী দিনের ইলিশ। তাই দেশে ইলিশের প্রাচূর্য বৃদ্ধির জন্য জাটকা ধরা বন্ধ করতে হবে। এতে জেলেরাই সবচেয়ে বেশি লাভবান হবে।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন সামুদ্রিক মৎস্য গবেষণা ও প্রযুক্তি কেন্দ্রের উপ-পরিচালক ড. আবদুর রাজ্জাক ও সিনিয়র বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. শফিকুর রহমান প্রমূখ।