ইমাম খাইর, সিবিএনঃ
ই-ফাইলিং (নথি) ব্যবহারে সারাদেশের মধ্যে ২য় স্থানে রয়েছে কক্সবাজার জেলা। কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে ই-ফাইল (নথি) প্রেরণের মাধ্যমে এই অবদান রাখে কক্সবাজার জেলা প্রশাসন। এক্ষেত্রে সারাদেশে ১ম স্থানে রয়েছে কুমিল্লা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়। তৃতীয় হয়েছে কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক কার্যালয়।
কক্সবাজার জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, ই-নথিতে মার্চ মাসের ১ম পাক্ষিকে (০১-১৫ মার্চ, ২০১৯) সারাদেশে কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ধারাবাহিকভাবে ২য় স্থান অক্ষুণ্ন রেখেছে।
প্রশাসক কার্যালয় হতে প্রেরিত গৃহিত ডাকের সংখ্যা ২৮৭০, নিস্পন্ন ২৬১৭, স্ব-উদ্যোগে সৃজিত নথির নোটের সংখ্যা ৮৪৮, ডাক থেকে সৃজিত নোটের সংখ্যা ২১৬৬, নোটে  নিস্পন্নের সংখ্যা ২৩৮৭, আন্তঃ সিস্টেম পত্রজারির সংখ্যা ২১৩, ই-মেইল ও অন্যান্য পত্রজারির সংখ্যা ১২৬৭সহ মোট পত্রজারি সংখ্যা ১৪৮০ এবং মোট পত্রজারির সংখ্যায় রয়েছে ১৫২১টি।
সারাদেশের এ ক্যাটাগরি ২৬ টি জেলার মধ্যে ই-ফাইলিং এ কক্সবাজার জেলা প্রশাসন ফেব্রুয়ারি পুরো মাসে দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেছে।
এর আগে ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম পাক্ষিকের পরিসংখ্যানেও কক্সবাজার জেলা প্রশাসন দ্বিতীয় স্থান অধিকার করেছিল।
কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের ই-ফাইলিং এ অর্জন একটা মাইলফলক বলেছেন জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন।
তিনি বলেন, জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আন্তরিকতাপূর্ণ সেবা, দায়িত্বশীল আচরণ ও পেশাদারিত্বের কারণে এই স্বীকৃতি অর্জন সম্ভব হয়েছে। এই অর্জন জেলা প্রশাসনের সবাইকে প্রেরণা ও প্রত্যয়ে সমৃদ্ধ করবে।
তিনি বলেন, সারাদেশে দ্বিতীয় সেরা হয়েছি সেটা বড় কথা নয়-দাপ্তরিক সেবাকে সাধারণ মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে পেরেছি কিনা, সেটাই বড় কথা।
জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন ভবিষ্যতে ই-ফাইলিং এ দেশসেরা হওয়ার জন্য সকলের সহযোগিতা ও দোয়া কামনা করেছেন।