তাজুল ইসলাম পলাশ, চট্টগ্রাম:

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সারাদেশে নির্বাচনী হাওয়া শুরু হয়ে গেছে। সব দল থেকে পার্থী যাছাই বাছাইও চলেছে। আর বিএনপি নির্বাচনে ব্যাঘাত ঘটাতে বিরুপ সমালোচনা করে যাচ্ছে। কিন্তু সেই আশা কখনো পূরণ হবেনা। নির্বাচনের দায়িত্ব নির্বাচন কমিশনের। উদ্যোগ নেবে নির্বাচন কমিশন। আজ বৃহস্পতিবার (১২ জুলাই) দুপুরে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে নির্মাণাধীন পটিয়া বাইপাস সড়কের কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি এসব কথা বলেন।

কাদের বলেন, ২০০১ সালের মতো বাংলাদেশে আর নীলনকশার নির্বাচন হবে না। নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরিসহ সব নির্বাচনী কাজ করবে কমিশন। নির্বাচন পরিচালনা নিয়ে সরকারের কিছু করণীয় নেই। নির্বাচনে কোনো সহযোগিতা চাইলে সরকার শুধু সেই সহযোগিতা দেবে।

পটিয়া বাইপাস সড়কের কাজ ২০১৯ সালের জানুয়ারিতে শেষ হবে জানিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, শাহ আমানত সেতুর দুই পাশে নির্মাণাধীন একটি ছয় লেন ও আরেকটি চার লেনের সড়ক নির্মাণ প্রকল্পের কাজ চলছে। এটা কুয়েত ফান্ডের প্রকল্প। চট্টগ্রামে এটিই ছয় লেনের প্রথম সড়ক। এছাড়া চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়ক চার লেন করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এ প্রকল্পের ডিপিপি পরিকল্পনা কমিশনে জমা আছে। আমরা বিদেশি সংস্থা খুঁজছি। প্রধানমন্ত্রীর অনুরোধে জাইকা রাজি হয়েছে। প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে এ অঞ্চলের যাতায়াত ব্যবস্থা আরও এগিয়ে যাবে।