স্পোর্টস ডেস্ক :
শুধু খেলার মাঠেই নয়, মাঠের বাহিরের নিজেকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যাচ্ছেন ফ্রান্স দলের তরুণ তুর্কি কাইলিয়ান এমবাপে। শনিবার শেষ ষোলর ম্যাচে তার জাদুতেই আর্জেন্টিনাকে ৪-৩ গোলে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে এখন ফ্রান্স দল।

এমবাপে করেছেন জোড়া গোল আর পুরো আর্জেন্টাইন মাঝমাঠ আর রক্ষণভাগকে যেন একাই নাচিয়ে ছেড়েছেন ১৯ বছর বয়সী এই তারকা স্ট্রাইকার। বনে গেছেন ফ্রেঞ্চ দলের নায়ক। তবে শুধু খেলার মাঠে আর দলে না মাঠের বাহিরের নায়কও এখন সে।

ইতোমধ্যেই এমবাপে ঘোষণা দিয়েছেন এ বিশ্বকাপ থেকে যত টাকাই সে উপার্জন করবে তার পুরোটাই সে দাতব্য কাজে ব্যয় করবেন। অর্থাৎ বিশ্বকাপ থেকে আয়কৃত কোন টাকাই সে নিজের জন্য ব্যয় করবেন না।

‘প্রিমিয়ারস ডি করদে’ নামক এক দাতব্য সংস্থার সাথে প্রায় অনেক দিন ধরেই কাজ করে আসছেন এমবাপে। সেখানে মূলত বিশেষ চাহিদা-সম্পন্ন শিশুদের দেখভাল করা হয়। সেখানে এসব শিশুদের চিকিৎসা করে খেলার দিকে আকর্ষিত করা হয়। তাই এই দাতব্য সংস্থায় নিজের আয়কৃত সব টাকা দান করে দিবেন বলে নিশ্চিত করেছেন এমবাপে।

বিশ্বকাপে প্রতি ম্যাচে মাঠে নামার জন্য ২০,০০০ ইউরো বা বাংলাদেশি টাকায় (প্রায় ২০ লক্ষ টাকা) আর বিশ্বকাপ জিততে পারলে বোনাস হিসেবে ৩০০,০০০ ইউরো বা বাংলাদেশি টাকায় (প্রায় ৩ কোটি টাকা) পাবেন এমবাপে। এই বিশাল পরিমাণ টাকার পুরোটাই মানবতার সেবায় ব্যয় করতে যাচ্ছে এই ফ্রান্স তারকা।