প্রেস বিজ্ঞপ্তি:

মহেশখালী-কুতুবদিয়া আসনের নৌকার প্রতীকের সম্ভাব্য প্রার্থী ও আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন পরিবেশ বিজ্ঞানী প্রফেসর ড. আনসারুল করিম বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মহেশখালীতে অনেক গুলো উন্নয়ন প্রকল্প হাতে নিয়েছেন। এই প্রকল্প গুলো যথাযথভাবে বাস্তবায়ন হলে দেশের রাজস্বে সিংহভাগ জোগান যাবে মহেশখালী থেকে। এগুলো যথাযথভাবে বাস্তবায়ন করতে দরকার একজন সৎ ও যোগ্য নেতৃত্ব। তাই নির্বাচনকে সামনে রেখে জনগণকে এখনই সিদ্ধান্ত নিতে যোগ্য নেতৃত্ব চান কি চান না। আর যদি চান, তাহলে ভোটের মাধ্যমে সেই যোগ্য নেতৃত্ব বেছে নিতে হবে।

বৃহস্পতিবার (২১ জুন) মহেশখালীর হোয়ানক ইউনিয়নের হরিয়ারছড়া যুবলীগের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক মতবিনিমভায় তিনি এসব কথা বলেন।

ড. আনসারুল করিম বলেন, মহেশখালীতে এতগুলো প্রকল্প দেওয়ার পরেও এখানকার মানুষ এবং এলাকা চরম অবহেলিত। সাধারণ মানুষের সেই দুর্দশার কথা গুলো সঠিকভাবে প্রধানমন্ত্রী বরাবর পৌছছে না। তাই উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নের সঙ্গে সঙ্গে মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন এবং এলাকার উন্নয়নের জন্য প্রধানমন্ত্রী বরাবরে আওয়াজ তোলার জন্য একজন যোগ্য নেতৃত্ব বাছাই করার দায়িত্ব জনগণেরই।

মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন সাবেক মেম্বার ও হোয়ানক ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ২নং ওয়ার্ডের সভাপতি ছিদ্দিক আহমেদ চৌধুরী। এতে আরও বক্তব্য রাখেন ড. আনসারুল করিমের সুযোগ্য সন্তান সুপ্রীম কোর্টের স্বনামধন্য আইনজীবী ব্যারিস্টার আদনান করিম, মহেশখালী উপজেলার পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও মাতারবাড়ি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি অ্যাড. মোস্তাক আহমেদ, বিশিষ্ট আওয়ামী লীগ নেতা ও মেম্বার ছৈয়দ আহমেদ, ইউনিয়ন কৃষকলীগের সভাপতি সাবেক মেম্বার ফরিদুল আলম, ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি নিপন্দ্র দে, হোয়ানক কলেজের প্রফেসর এহেছান আলী, কমিউনিটি হেলথ প্রোভাইডার গোলাম মুস্তফা।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুস সালাম সোনা মিয়া, ৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রশিদ মিয়া, ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিপীন দে, ২নং ওয়ার্ড যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নুরুল আলম ও ড. আনসারুল করিমের ছোট ছেলে আইমান করিম।

মতবিনিময় সভার আগে কালারমারছড়া ইউনিয়নের উত্তর নলবিলা থেকে শুরু করে কালারমারছড়া বাজার হয়ে হোয়ানক ইউনিয়নের ছংকুলা পাড়া বাজার, রাজুয়ারঘোনা, টাইমবাজার হয়ে হরিয়ারছড়া এলাকায় গনসংযোগ করেন।