জাগোনিউজ : প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এসকে ) সিনহা পূজার উদ্দেশে ঢাকেশ্বরী মন্দিরে গেছেন। বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে তিনি হেয়ার রোডের বাসা থেকে বের হয়ে সেখানে যান।

প্রায় আধা ঘণ্টা মন্দিরে অবস্থান করার পর ৫টা ৫৫ মিনিটের দিকে মন্দির থেকে বের হয়ে আসেন। সন্ধ্যা ৬টা ২০ মিনিটের দিকে হেয়ার রোডের বাসভবনে ফিরে আসেন প্রধান বিচারপতি। এ সময় তার স্ত্রী সুষমা সিনহা সঙ্গে ছিলেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার বিকেলে আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক তার বাসায় যান। এর পরই লক্ষ্মী পূজার উদ্দেশে বাসা থেকে বের হন প্রধান বিচারপতি। প্রায় চারদিন পর বাসভবন থেকে বের হলেন তিনি।

সুত্রে জানা গেছে, এর আগে ভিসা সংক্রান্ত কাজ করার জন্য আজ দুপুরে তিনি অস্ট্রেলিয়ান অ্যাম্বাসিতে গিয়েছিলেন। এরপর বিকেলে পূজা দিতে মন্দিরে যান।

মন্দিরে প্রধান বিচারপতির সঙ্গে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর রানা দাশগুপ্ত ও গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরীর সাক্ষাৎ হয়। প্রধান বিচারপতি সুস্থ আছেন, স্বাভাবিক আছেন বলে জানিয়েছেন রানা দাশগুপ্ত।

জানা গেছে, বিকেল ৪টার দিকে প্রধান বিচারপতির বাসায় যান আইনমন্ত্রী। ৪০ মিনিটের মতো সময় কাটিয়ে মন্ত্রী তার বাসা থেকে বের হন। এরপরই বিচারপতি স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে বাসা থেকে বের হন পুরান ঢাকার ঢাকেশ্বরী মন্দিরের উদ্দেশে। মন্দিরের ম্যানেজার তপন চ্যাটার্জি সাংবাদিকদের জানান, বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে তিনি আসেন, ৫টা ৫৫ মিনিট পর্যন্ত অবস্থান করেন।

প্রসঙ্গত, ২ অক্টোবর প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা এক মাসের ছুটির আবেদন করেন বলে জানান আইনমন্ত্রী আনিসুল হক ও অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। ওই দিন রাতেই আইন মন্ত্রণালয় থেকে প্রজ্ঞাপন জারি করে ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি নিয়োগ দেয়া হয় আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি মো. আব্দুল ওয়াহহাব মিঞাকে। তিনিই বর্তমানে প্রধান বিচারপতির দায়িত্ব পালন করছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •