রোহিঙ্গাদের জন্য ১২ মিলিয়ন ডলার দেবে জাতিসংঘ

প্রকাশ: ৩ অক্টোবর, ২০১৭ ০৯:৫৭ , আপডেট: ৩ অক্টোবর, ২০১৭ ১০:০৬

পড়া যাবে: [rt_reading_time] মিনিটে


কক্সবাজারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে কথা বলেন জাতিসংঘের মানবিক সহায়তা বিভাগের আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল ও জরুরি ত্রাণ সমন্বয়ক মার্ক লোকক। 

সিবিএন:

বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের সহায়তার জন্য জাতিসংঘ ত্রাণ তহবিলের পক্ষ থেকে ১২ মিলিয়ন ডলার আর্থিক সহায়তা দেওয়া হবে। তবে ত্রাণ সংকট কাটানোর জন্য প্রয়োজন ৪৩০ মিলিয়ন ডলার। আর এ তহবিল সংগ্রহে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে যেতে হবে বাংলাদেশকেই।
মঙ্গলবার কক্সবাজারের একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন জাতিসংঘের মানবিক সহায়তা বিভাগের আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল ও জরুরি ত্রাণ সমন্বয়ক মার্ক লোকক।

দুর্দশায় পড়া রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য বাংলাদেশের সরকার ও মানুষদের একাধিকবার ধন্যবাদ দিয়েছেন লোকক।

মার্ক লোকক বলেন, ‘বাংলাদেশের মানুষ ও সরকারের মহানুভবতা, মানবতা ও সংহতির প্রতি আমরা সম্মান জানাই। দুর্দশায় থাকা এসব মানুষের পাশে যেভাবে তাঁরা দাঁড়িয়েছেন তা অনুপ্রাণিত করার মতো।’

মার্ক লোকক বলেন, ‘ছয় সপ্তাহ ধরে ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনা করছে বিভিন্ন সংগঠন। খাদ্যসহায়তা দেওয়া হয়েছে। তিন লাখ রোহিঙ্গাকে স্যানিটেশন সুবিধা দেওয়া হয়েছে, দেড় লাখেরও বেশি মানুষের আশ্রয়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এক লাখেরও বেশি শিশুদের টিকা দেওয়া হয়েছে। ৫০ হাজারের মতো মানুষকে কাইন্সেলিং সুবিধা দেওয়া হয়েছে।’

মার্ক লোকক আরো বলেন, রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলোর পরিস্থিতি ভয়াবহ। তিনি বলেন, ‘আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় থেকে আমাদের আরো সহযোগিতা প্রয়োজন।’

লোকক বলেন, ‘সামনে আমরা বেশ কিছু কনফারেন্সের আয়োজন করেছি। এর মাধ্যমে আমরা বিভিন্ন সংস্থার কাছে অবস্থাগুলো তুলে ধরব। আমাদের অন্যতম বাধা এখন অর্থ। আমরা যদি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সাহায্য পাই, তবে রোহিঙ্গাদের এ মানবিক বিপর্যয় বেড়ে যাওয়াটা রোধ করা যাবে।’

এ সময় তাঁর পাশে ছিলেন জাতিসংঘ শিশু তহবিলের (ইউনিসেফ) নির্বাহী পরিচালক অ্যান্থনি লেক।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •