ফারুক আহমদ, উখিয়া ॥

উখিয়ার উত্তর পুকুরিয়া গ্রামে আসামীরা জামিন নিয়ে এলাকায় এসে মামলার বাদী ও স্বাক্ষীদেরকে নানা ধরনের হুমকি-ধমকি দিয়ে যাচ্ছে বলে গুরুতর অভিযোগ উঠেছে। শুধু তাই নয় মিথ্যা ঘটনা সাজিয়ে বাদী ও স্বাক্ষীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করার অপচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। বলতে গেলে আসামীদের বেপরোয়া প্রাণ নাশের হুমকিতে নিরহ বয়োবৃদ্ধ তাজুর মুল্লকের পরিবার শংকিত জীবন যাপন করছে। এব্যাপারে ভুক্ত ভোগীর পরিবার পুলিশ সুপার ও উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।

অভিযোগে প্রকাশ, রাজাপালং ইউনিয়নের উত্তর পুকুরিয়া গ্রামের সীমানা বিরোধের জের ধরে গত ২২ সেপ্টেম্বর প্রতিপক্ষ সাহাবউদ্দিনের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী ধারালো দা দিয়ে হামলা চালায়। হামলায় তাজুর মুল্লক (৬৫) ও স্ত্রী রাজিয়া বেগম (৫০) গুরুতর আহত হয়। স্থানীয় গ্রাম বাসী তাদেরকে রক্তাত্ব অবস্থায় উদ্ধার করে উখিয়া হাসপাতালে ভর্তি করে। এব্যাপারে তাজুর মুল্লক বাদী হয়ে উখিয়া থানায় ৫জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে। যার মামলার নম্বর ৩৭৩/২৫। এতে সাহাব উদ্দিন, নাছির উদ্দিন ও আব্দুরহমানকে প্রধান আসামী করা হয়।

মামলার বাদী বয়োবৃদ্ধ তাজুর মুল্লক অভিযোগ করে বলেন, আসামীরা জামিন নিয়ে এলাকায় এসে আমাকে এবং আমার ছেলে নুরুল আমিন ও মামুনকে বিভিন্ন ধরনের হুমকি দিচ্ছে। এমনকি পথে ঘাটে একা পেলে প্রাণ নাশেরও ধমক দেওয়ায় বর্তমানে বাড়ি থেকে কেউ বের হতে পারছি না। শুধু তাই নয় আমাদেরকে হয়রানি করতে মিথ্যা ঘটনা সাজিয়ে মামলা দিবে বলেও হাকা-বকা করতেছে।

আসামীর হুমকি-ধমকি ও প্রাণ নাশের অপচেষ্টা থেকে মুক্ত ও পরিবার পরিজনের নিরাপত্তা নিশ্চিতসহ স্বাভাবিক চলাফেরা করতে পুলিশ প্রসাশনের সহযোগিতা চেয়েছেন অসহায় পরিবার।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •