প্রেস বিজ্ঞপ্তি:

আশেক উল্লাহ রফিক এমপি বলেছেন, মহেশখালীতে সকল ধর্মীয় উৎসবে এক ধর্মালম্বী অন্য ধর্মালম্বীকে সহযোগীতা করে যা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির অনন্য দৃষ্টান্ত। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঠিক একইভাবে দেশ পরিচালনা করছেন। তাই বাংলাদেশের ভাবমূর্তী আজ বিশ্বে উজ্জ্বল। তিনি আরো বলেন, মহেশখালীর প্রতিটি ধর্মীয় উৎসব মহোউৎসবে পরিণত হয়। সনাতন ধর্মালম্বীদের শারদীয় শুভেচ্ছা জানিয়ে তিনি বলেন, কারো ধর্মীয় অনুভুতিতে আঘাত করা কোন ধর্ম অনুমোদন করে না। তাই পরস্পরের প্রতি শ্রব্ধা রেখেই এগিয়ে যেতে চাই। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বন্ধনে সবাই আবদ্ধ হতে চাই। তিনি গতকাল রাতে মহেশখালীর বিভিন্ন পুজা মন্ডপ পরিদর্শনকালে এ কথা বলেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল কালাম, মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ তদন্ত শফিকুল আলম, নির্মল চক্রবর্তী, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা ব্রজগোপাল ঘোষ, মির কাসেম, প্রণব কুমার দে, জাফর আলম জফুর, শান্তি লাল নন্দী, জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি আশহাদ উল্লাহ সায়েম, কুতুবউদ্দিন, জেলা ছাত্রলীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক সরওয়ার কাইছার ছিদ্দিকী সোহেল, নুর মোহাম্ম বাদশা, শাহনেওয়াজ ও নজরুল ইসলাম। তিনি গতকাল হোয়ানক, বড়মহেশখালী, ছোট মহেশখালী ও পৌরসভার বিভিন্ন পুজামন্ডপ পরিদর্শন করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •