খালেদ হোসেন টাপু, রামু:

রামু উপজেলার জোয়ারিয়ানালায় সন্ত্রাসী হামলায় আহত যুবক মঞ্জুর আলম (৩২) চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে। সে জোয়ারিয়ানালা পূর্ব নোনাছড়ি মুরা পাড়ার মৃত নজির আহমদের ছেলে।

বুধবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঞ্জুরের মৃত্যু হয় বলে তার পরিবার জানিয়েছে।

বোন রাশেদা বেগম জানান, মঙ্গলবার বিকেলে স্থানীয় প্রভাবশালী ভূমিদস্যু জাহাঙ্গীর আলমের নেতৃত্বে নুরুল হুদা, আনোয়ারা বেগম ও বুলবুল আক্তারসহ একদল ভাড়াটে সন্ত্রাসী লাউয়ার বিলস্থ জমির সীমানা বিরোধের জের ধরে হত্যার উদ্দেশ্যে পরিকল্পিতভাবে তার ভাই মঞ্জুর আলমের উপর হামলা করে। হামলায় ভাই মঞ্জুর আলমের মাথা ও সর্ব শরীরে গুরুতর আঘাত করে সন্ত্রাসীরা। এতে তার মাথা থেকে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়। তিনি আরো জানান, আমার আরেক বোন সেলিনা খবর পেয়ে ভাই মঞ্জুর আলমকে হামলাকারিদের হাত বাঁচাতে উদ্ধার করতে এগিয়ে গেলে সেলিনার উপর হামলা চালান সন্ত্রাসীরা । সেও গুরুত্বর আহত হন। এসময় সন্ত্রাসীরা নগদ টাকা, মোবাইল সেট, স্বর্ণের চেইন লুট করে বলে তিনি জানান।

এদিকে হামলার পরপরই নিকট আত্মীয় স্বজনরা দ্রুত চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে বুধবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঞ্জুর মারা যান। বৃস্পতিবার রাত ৭ টার দিকে ময়নাতদন্ত শেষে মঞ্জুর আলমের মৃতদেহ চট্টগ্রাম থেকে এম্বুলেন্সে করে পূর্ব নোনাছড়িতে নিজ বাড়িতে আনা হয়। রাত ৯ ৪০ মিনিটে পূর্ব নোনা জামে মসিজদের মাঠে তার নামাজের জানাযা অনুষ্ঠিত হয়।

জোয়ারিয়নালা চেয়ারম্যান কামাল শামসুদ্দিন আহমদ প্রিন্স মুঞ্জরের মৃত্যুর বিষয় নিশ্চিত করে জানান, হামলার বিষয়টি খুবই দুঃখ জনক। এ হত্যার সঙ্গে জড়িত অপরাধী যে হোক না কেন তাকে আইনের আওতায় আনার জন্য প্রশাসনের প্রতি আহবান জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •