শামিম ইকবাল চৌধুরী, নাইক্ষ্যংছড়ি :
উপকূল হাওড়ে বিশাল বিপর্যয় ক্ষয়-ক্ষতি পর পরই গত এক মাস আগে থেকে আসা রোহিঙ্গার ঢল শেখ হাসিনার সরকার অসম সাহস ও প্রবল মনোবল নিয়ে রোহিঙ্গা সংকট মোকাবেলা করছে। সোমবার (২৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুনধুম সীমান্তের তুমব্রু সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে রোহিঙ্গাদের মাঝে ত্রাণ বিতরণের সময় উপরোক্ত কথা বলেন।
তিনি বলেন- রোহিঙ্গাদের ফেরত নেওয়ার বিষয়ে আর্ন্তজাতিক ও কূটনৈতিক তৎপরতা চালাচ্ছে সরকার। রোহিঙ্গাদের হাউজিং,পানি, যোগাযোগসহ উন্নয়নের কাজ পুরো দমে চলছে। বর্তমানে প্রচুর ত্রাণ মজুদ আছে ত্রাণ বিতরণ হচ্ছে। কিন্তু এ ত্রাণ বিতরণে কোথাও হরিলুট বা বিশৃঙ্খলা হয়নি।
তিনি আরো বলেন, আমি দেখেছি গত কয়েকদিন পূর্বেও রোহিঙ্গাদের ত্রান বিতরণে বিশৃঙ্খলা ছিল। সেনাবাহিনী নিয়োগ দেওয়ার পরে সেই বিশৃঙ্খলার ছবি এখন আর নেই। এখন সবাই লাইন ধরে সুন্দর পরিবেশে ত্রান নিচ্ছে। বর্তমানে এসব রোহিঙ্গাদের জন্য দেশ-বিদেশ থেকে প্রচুর ত্রান আসছে এবং ত্রান জমা রয়েছে। অতিতে এসব ত্রান নিয়ে ছিনিমিনি খেলা হয়েছে। সেই সুযোগ আর নেই। তবে এবার কোন ধরনের অপকর্মের রিপোর্ট আমরা পায়নি।
আমাদের বর্ডার গার্ড বিজিবির সুন্দর পরিচালনায় এবং পুলিশের সতর্ক পাহারার কারণে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে পারেনি কেউ। এসব আশ্রিত রোহিঙ্গাদের পূর্ণবাসনের ব্যবস্থা করা হয়েছে এবং তাদেরকে শীগ্রই বান্দরবান পার্বত্য এলাকা থেকে আশ্রিত প্রায় ২৫ হাজার রোহিঙ্গাকে কক্সবাজারে সরিয়ে নেওয়া হবে।
এসময় পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি, কেন্দ্রীয় আওয়ামালীগের যুগ্ম সম্পাদক আবদুর রহমান, বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ক্যশৈহ্লা, জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বণিক, পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায়, বান্দরবান জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ইসলাম বেবী, কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি এড.সিরাজুল মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান চেয়ারম্যান প্রমুখ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •