এক লাখ রোহিঙ্গার আশ্রয় কেন্দ্র নির্মাণ করে দেবে তুরস্ক

প্রকাশ: ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ০৬:২৪

পড়া যাবে: [rt_reading_time] মিনিটে


সেনাবাহিনীর একাংশের অভ্যুত্থানচেষ্টার পর ইস্তাম্বুলে সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। ছবি : রয়টার্স

ডেস্ক নিউজ:
মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের মধ্যে এক লাখের জন্য আশ্রয় কেন্দ্র নির্মাণ করে দেবে তুরস্ক সরকার।

রোববার সচিবালয়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়ার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করে তুরস্কের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক ও সহযোগিতাবিষয়ক সংস্থার সমন্বয়ক আহমেদ রফিক এ সহায়তার আশ্বাস দেন।

আহমেদ রফিক জানান, রোহিঙ্গা সমস্যার সুষ্ঠু সমাধানে তুরস্ক বাংলাদেশের পাশে থাকবে। বাংলাদেশে পালিয়ে আসা এক লাখ রোহিঙ্গা নাগরিকের জন্য আশ্রয় কেন্দ্র নির্মাণ করে দেবে তুরস্ক। রোহিঙ্গাদের মধ্যে বিতরণের জন্য তুরস্ক শিগগিরই ১৩টি আইটেমের সমন্বয়ে প্রস্তুতকৃত ১০ হাজার প্যাকেট ত্রাণ সামগ্রী দেবে।

এছাড়া তুরস্কের উপ-প্রধানমন্ত্রী রিসেপ আব্বাস বাংলাদেশ সফর করবেন বলেও ত্রাণমন্ত্রীকে জানান আন্তর্জাতিক সম্পর্ক ও সহযোগিতাবিষয়ক সংস্থার সমন্বয়ক।

আশ্রয় কেন্দ্র নির্মাণের স্থান, ত্রাণ হস্তান্তরের সময় ও তুরস্কের উপ-প্রধানমন্ত্রীর সফর কর্মসূচি নিয়ে আলোচনা হয় বৈঠকে।

রোহিঙ্গাদের নির্যাতনের বিষয়টিকে অমানবিক হিসেবে উল্লেখ করে দ্রুত এর সমাধান আশা করেন মায়া ও রফিক। রোহিঙ্গা নিয়ে সরকারের মনোভাব ও অবস্থান সম্পর্কে তুরস্কের প্রতিনিধিকে অবহিত করেন মন্ত্রী।

ত্রাণমন্ত্রী জানান, একান্ত মানবিক কারণে মিয়ানমারের নাগরিক রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে আশ্রয় দিয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •