cbn  

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি
মিয়ানমারের সাম্প্রদায়িক সহিংসতায় নিহত রোহিঙ্গা মুসলিমদের মাগফিরাত কামনা করে শুক্রবার বাদের জুমা গায়েবানা জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে। একই সঙ্গে এ ঘটনায় আহতদের সুস্থতা কামনা করে দোয়া অনুষ্ঠান করা হয়।
কেন্দ্রঘোষিত কর্মসুচির অংশ হিসেবে কক্সবাজারে জামায়াতে ইসলামী এ কর্মসুচি আয়োজন করে।
এতে বক্তারা বলেছেন, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের অনুরোধকে উপেক্ষা করে মিয়ানমার সরকার এখনো মুসলিম নিধনে লিপ্ত রয়েছে। ২৫ আগষ্টের পর থেকে হাজার-হাজার রোহিঙ্গা মুসলিম নির্যাতন ও হত্যার শিকার হয়েছে। ধর্ষিত হয়েছে হাজারো তরুণী। নিহত হয়েছে প্রায় ৫ সহ¯্রাধিক বনি আদম। ঘরবাড়ি ছেড়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে প্রায় ৭ লক্ষাধিক রোহিঙ্গা মুসলিম। মিয়ানমার সরকার সন্ত্রাস দমনের নামে মুসলিম জাতি নিধনে লিপ্ত রয়েছে। আমরা অবিলম্বে রোহিঙ্গা মুসলিমদেরকে তাদের নিজ দেশে ফিরিয়ে নিয়ে পুর্নবাসন ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করণের জন্য জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে বলিষ্ট ও কার্যকর ভূমিকা পালনের আহবান জানাচ্ছি। পাশাপাশি বাংলাদেশে সাময়িকভাবে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের খাদ্য, নিরাপত্তা ও প্রয়োজনীয় সংখ্যক পানি ও স্যানিটেশনের ব্যবস্থা করার আহবান জানাচ্ছি। বক্তারা নিহত রোহিঙ্গা মুসলিম নারী-পুরুষ-শিশুদের মাগফিরাত কামনা করেন এবং আহতদের আশু সুস্থতার জন্য দোয়া করেন। জেলার বিভিন্নস্থানে গায়েবানা জানাযা ও দোয়া মাহফিলের বিস্তারিত
কক্সবাজার শহর: কক্সবাজার শহর জামায়াতে ইসলামীর উদ্যোগে কুতুবদিয়াপাড়া, খানেকায়ে হামেদিয়া জামে মসজিদ, সাহিত্যিকা পল্লী, কলাতলীসহ বিভিন্নস্থানে গায়েবানা জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সর্বস্তরের মুসল্লি অংশগ্রহণ করেন। এছাড়াও শহরের বিভিন্ন মসজিদে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
উখিয়া উপজেলা: উপজেলা জামায়াতের উদ্যোগে রাজাপালং, হিজলিয়া স্টেশন, পাগলিরবিল ও চেপটখালীসহ বিভিন্নস্থানে গায়েবানা জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপজেলা আমীর মাওলানা আবুল ফজলসহ স্থানীয় নেতাকর্মীসহ সর্বস্তরের মুসল্লি অংশগ্রহণ করেন।
পেকুয়া: উপজেলা জামায়াতের উদ্যোগে রাজাখালী রেশারাতুল উলুম ইসলামিয়া মাদরাসা সংলগ্ন মাঠে বিশাল গায়েবানা জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। জানাযায় ইমামতি করেন মাওলানা শফিকুর রহমান।
ঈদগাহ: সদর উপজেলার ঈদগাঁহের বায়তুর রহমান জামে মসজিদ, জুমবাড়ি, উত্তর পালাকাটা বটতলী, দুলইন্ন্যামুরা, নাইক্ষংদিয়া, ইছাখালী, ইউসুফেরখীল ও উত্তর মাইজপাড়াসহ বিভিন্ন এলাকায় গায়েবানা জানাযা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে সর্বস্তরের মুসল্লি ও স্থানীয় নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।
চকরিয়া পৌরসভা: পৌরসভার ১,২,৩,৭,১০ নং ওয়ার্ডসহ বিভিন্নস্থানে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে স্থানীয় মুসল্লিসহ নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
কুতুবদিয়া: উপজেলা সদর ও কৈয়ারবিল এলাকায় পৃথক পৃথক গায়েবানা জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়াও উপজেলার অন্যান্যস্থানে দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে স্থানীয় জামায়াতে ইসলামী।
সদর: সদর উপজেলার তেতৈয়া ও ভারুয়াখালীসহ বিভিন্নস্থানে গায়েবানা জানাযা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে স্থানীয় মুসল্লিসহ নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।
রামু: উপজেলার চাকমারকুল, গর্জনিয়া, কচ্ছপিয়াসহ বিভিন্ন এলাকায় দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেন স্থানীয় জামায়াতে ইসলামী। এতে সর্বস্তরের মুসল্লিসহ নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।
এছাড়াও জেলার টেকনাফ, মহেশখালী ও চকরিয়া উপজেলার বিভিন্নস্থানে পৃথক পৃথক গায়েবানা জানাযা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •